আপনি পড়ছেন

বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও সাইবার হামলার প্রবণতা বাড়ছে। এ নিয়ে এখন থেকেই সর্তক থাকবে হবে, তা না হলে যেকোনো সময় বড় ধরনের অঘটন ঘটতে পারে। সরকারি-বেসরকারি সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টায় এই যুদ্ধের মোকাবেলা করতে হবে বলে,এমনটাই বললেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের জ্যেষ্ঠ সচিব এন এম জিয়াউল আলম।

cyber crime 1দেশের সাইবার জগতে বড় ধরনের অঘটন ঘটতে পারে

৩১ অক্টোবর, সোমবার রাজধানীর এক হোটেলে গণমাধ্যমকর্মীদের ডিজিটাল লিটারেসি ও সাইবার নিরাপত্তা বিষয়ে প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন সচিব।

সাইবার নিরাপত্তায় সমন্বিত ফোর্স তৈরি করা হবে জানিয়ে এন এম জিয়াউল আলম বলেন, একটি সমন্বিত ফোর্স তৈরি করে সাইবার জগতকে নিরাপদ রাখতে কাজ করার বিষয়ে আমরা ইতোমধ্যেই নির্দেশনা পেয়েছি।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের জ্যেষ্ঠ সচিব আরও বলেন, আমরা যেসব ডিজিটাল ডিভাইস ব্যবহার করি, তা এখন নিরাপদ নয়। সব সময় সাইবার অপরাধীরা ডিভাইস হ্যাকিংয়ে ব্যস্ত থাকে। তাই নিজেদের সচেতন হতে হবে।

প্রশিক্ষণ কর্মশালায় অংশ নেন টেকনোলজি মিডিয়া গিল্ড বাংলাদেশের (টিএমজিবি) ৫০ জন সদস্য। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিসিসির নির্বাহী পরিচালক রণজিৎ কুমার, টিএমজিবি সভাপতি মোহাম্মদ কাওছার উদ্দীন এবং সাধারণ সম্পাদক মুরসালিন হক জুনায়েদ।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের উদ্যোগে আয়োজিত এই প্রশিক্ষণে অংশ নেওয়ার মাধ্যমে গণমাধ্যমকর্মীরা সাইবার নিরাপত্তা, সাইবার বুলিং, গুজব, অনলাইন প্রাইভেসি এবং ডিজিটাল ফুটপ্রিন্ট ইত্যাদি বিষয়ে জ্ঞান অর্জনে সক্ষম হন।