আপনি পড়ছেন

শ্রীলঙ্কার বিদায় নিশ্চিত হয়ে গেছে আগেই। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তাদের হারানোর কিছু ছিল না। তবে পাওয়ার ছিল। যদিও আনুষ্ঠানিকতার ম্যাচে অনুমিতভাবেই ইংলিশদের বিপক্ষে হেরে গেছে লঙ্কানরা। এশিয়ান চ্যাম্পিয়নদের চার উইকেটে হারিয়ে ইংল্যান্ড উঠে গেল টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে।

chris woakes and ben stokes are happyটি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল নিশ্চিত হওয়ার পর ইংল্যান্ডের উল্লাস

আজ সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে টস জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে আট উইকেটে ১৪১ রানের সংগ্রহ তোলে শ্রীলঙ্কা। এই রান তাড়ায় জয়ের জন্য শেষ ওভার পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হয়েছে ইংল্যান্ডকে। শেষ পর্যন্ত দুই বল ও চার উইকেট হাত রেখে জয় তুলে নেয় জস বাটলারের দল। ম্যাচ সেরা হয়েছেন আদিল রশিদ।

ব্যাট হাতে শ্রীলঙ্কার শুরুটা ছিল দ্রুতগতির। এরপর কমে আসে রানের গতি। ৪৫ বলে দলীয় সর্বোচ্চ ৬৭ রান করেন ওপেনার পাথুম নিসাঙ্কা। তার সঙ্গী কুশল মেন্ডিস ১৪ বলে ফেরেন ১৮ রানে। মিডল অর্ডার ব্যাটার ভানুকা রাজাপাকশের ব্যাট থেকে এসেছে ২২ বলে ২২ রান। বাকিরা যেতে পারেননি দুই অংকে।

লঙ্কানদের রানের গতি কমিয়ে দেন আদিল। চার ওভারে ১৬ রানে এক উইকেট নিয়ে তিনিই ম্যাচ সেরা। এ ছাড়া একটি করে উইকেট পেয়েছেন বেন স্টোকস, ক্রিস ওকস ও স্যাম কারান। তবে সর্বোচ্চ তিনটি উইকেট গেছে মার্ক উডের ঝুলিতে। বোলারদের দারুণ নৈপুণ্যে দেড় শ’র অনেক আগেই থেমে যায় লঙ্কানরা।

রান তাড়ার কাজটা সহজ করে ফেলে ইংল্যান্ডের টপ অর্ডার। উদ্বোধনী জুটিতে ৭৫ রান যোগ করেন বাটলার ও অ্যালেক্স হেলস। ২৩ বলে ২৮ রানে বিদায় নেন বাাটলার। ৩০ বলে ৪৭ রান করেন হেলস। তবে ৩৬ বলে ৪২ রানে অপরাজিত থাকেন অলরাউন্ডার স্টোকস।

শেষ দিকে দ্রুত কয়েকটি উইকেট হারালে ইংল্যান্ডের জয় বিলম্বিত হয়। তবে লক্ষ্যচ্যুত হয়নি তারা। এই জয়ে গ্রুপ-১ এর দ্বিতীয় দল হিসেবে সেমিফাইনালের টিকিট কাটল ইংল্যান্ড। প্রথম দল হিসেবে শেষ চারে ওঠে নিউজিল্যান্ড। তাদের সমান পাঁচ ম্যাচে সাত পয়েন্ট থাকা সত্ত্বেও রানরেটে পিছিয়ে থাকায় বিদায় নিতে হলো টুর্নামেন্টের স্বাগতিক ও ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়াকে।