আপনি পড়ছেন

পাকিস্তান দলের সাথে গত বছর মেন্টর হিসেবে যুক্ত ছিলেন সাবেক অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটার ম্যাথু হেইডেন। এবারও তিনি আছেন বাবর বাহিনীর সাথে। এতদিন তার কোনো বক্তব্য শোনা যায়নি। অনেকটা অপ্রত্যাশিতভাবে সেমিফাইনালে ওঠার পর মুখ খুললেন তিনি। প্রতিপক্ষের প্রতি রীতিমতো হুঙ্কার দিয়ে রাখলেন, 'ওরা ভেবেছিল রেহাই পেয়ে গেছে। কিন্তু এখন আর ওরা আমাদের থেকে রেহাই পাবে না।'

mathu haidenড্রেসিং রুমে হেইডেন

গতকাল রোববার সকালেও কারও চিন্তায় ছিল না, পাকিস্তান এত সহজে সেমিফাইনালে যেতে পারে। গ্রুপ পর্বের শেষ অঘটন হিসেবে নেদারল্যান্ডস দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারিয়ে দিলে জমে উঠে পয়েন্ট টেবিলের হিসাব নিকাশ। ভারতের সেমিফাইনাল নিশ্চিত হয়ে যায়। এছাড়া সমীকরণ দাঁড়ায় বাংলাদেশ-পাকিস্তান ম্যাচে যে জিতবে, সেই চলে যাবে সেমিফাইনালে। বাংলাদেশকে হারিয়ে সেমিফাইনালের টিকিট কাটে বাবর আজমের বাহিনী।

এ অর্জনে পাকিস্তানের ড্রেসিংরুমে বলতে গেলে বাঁধ ভাঙা উল্লাস বয়ে যায়। আইসিসি ওই সময়ের একটি ভিডিও প্রকাশ করেছে। তাতে হেইডেনকে বলতে শোনা গেছে, এবার বিশ্বকাপে পাকিস্তানের যাত্রাটা দুর্দান্ত হয়েছে। প্রথম দুই ম্যাচ হেরে যেভাবে চাপের মুখে ছিল, সেই প্রতিকূল পরিস্থিতির মধ্যে দিয়ে বেরিয়ে এসেছে। এই পাকিস্তানকে দেখে এবার রীতিমতো আতঙ্কে ভুগবে বাকিরা।

pakistan and new zealand 2পাকিস্তান সেমিফাইনাল খেলবে নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে

হেইডেন বলেন, টিম পাকিস্তান যেভাবে বাড়তি উদ্যোম দেখাচ্ছে, নিজেদের প্রকৃত ক্ষমতা দেখাচ্ছে, তাতে তারা সব দলের কাছে আতঙ্ক হয়ে ওঠবে। এই মুহূর্তে এমন কোনও দল নেই, যারা পাকিস্তানের মুখোমুখি হতে চায়।

কোনো দলের নাম উল্লেখ না করে তিনি আরও বলেন, ওরা ভেবেছিল যে আমাদের হাত থেকে রেহাই পেয়ে গেছে। এখন ওরা আমাদের থেকে রেহাই পাবে না।

গত বিশ্বকাপের প্রসঙ্গ তুলে এনে বাবর আজমদের মেন্টর বলেন, গত বছরের তুলনায় এবার যেভাবে আমাদের বিশ্বকাপ অভিযানটা এগিয়েছে, সেটা আমার বেশি পছন্দ হয়েছে। গতবারের পরিস্থিতি ছিল পুরোপুরি ভিন্ন। সেবার বিশ্বকাপে বাবররা ছড়ি ঘুরিয়েছিলেন। তাতে অনেক প্রত্যাশা তৈরি হয়েছিল। এবার একেবারেই অপ্রত্যাশিতভাবে সেমিফাইনালে খেলছে পাকিস্তান। এতে পুরোপুরি হতবাক হয়ে গেছে বিপক্ষ। সেই সুযোগটাই পাকিস্তানকে কাজে লাগাতে হবে। সিডনি বা অ্যাডিলেড - যেখানেই যাই না কেন, আমরা বিপক্ষের ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ব।

দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে অবিশ্বাস্য জয় পাওয়া নেদারল্যান্ডসের কথা উল্লেখ করে হেইডেন বলেন, ডাচরা না থাকলে সম্ভবত আমরা এখানে আসতে পারতাম না। সম্ভবত নয়! আমরা এখানে আসতেই পারতাম না। কিন্তু বাস্তবতা হচ্ছে, এখন আমরা এখানে আছি।

আগামী বুধবার সিডনিতে প্রথম সেমিফাইনালে মুখোমুখি হবে নিউজিল্যান্ড ও পাকিস্তান। পরের দিন বৃহস্পতিবার অ্যাডিলেডে দ্বিতীয় সেমিফাইনালে পরস্পরের বিরুদ্ধে খেলবে ভারত ও ইংল্যান্ড। দুটি খেলাই শুরু হবে বাংলাদেশ সময় দুপুর দুইটায়।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর