আপনি পড়ছেন

চলমার টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ মিশন শেষ করে কয়েকদিন আগে দেশের বিমানে চড়েছে শ্রীলঙ্কা জাতীয় দল। তবে মাঠের বাইরে ক্রিকেটারদের নানা বিতর্কিত কাণ্ডে বারবার খবরের শিরোনামে আসছে দাসুন শানাকার দল। এবার ক্যাসিনো ইস্যুতে লঙ্কান দলে নতুন বিতর্কের সৃষ্টি হয়েছে।

sri lankaক্যাসিনো বিতর্কে আলোচনায় লঙ্কান ক্রিকেটার

শ্রীলঙ্কা দল অস্ট্রেলিয়ায় অবস্থানকালে বেশ কয়েকজন ক্রিকেটারের বিরুদ্ধে শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগ উঠে। এর ভিত্তিতে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ড। তিন সদস্যের এই তদন্ত কমিটিতে আছেন অ্যাটর্নি অব ল নিরোশান পেরেরা, অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি সিসিরা রত্নানায়েকে এবং অ্যাটর্নি অব ল আসেলা রেকায়া।

এই কমিটির তদন্তেই উঠে এসেছে ক্যাসিনো কাণ্ডের বিষয়টি। তদন্ত এখনও চলমান থাকায় শ্রীলঙ্কা ক্রিকেটের অভিভাবক সংস্থার কাছে চূড়ান্ত প্রতিবেদন দাখিল করেনি তিন সদস্যের কমিটি। মূলত এ জন্যই ক্যাসিনো কাণ্ডের সাথে জড়িত ওই ক্রিকেটারের নাম প্রকাশ করেনি এসএলসি।

গত ১ নভেম্বর গ্রুপ পর্বে নিজেদের চতুর্থ ম্যাচে আফগানিস্তানকে ৬ উইকেটে পরাজিত করে শ্রীলঙ্কা। বেশ কয়েকটি লঙ্কান প্রচারমাধ্যমের দাবি, দ্য গ্যাবায় অনুষ্ঠিত সে ম্যাচের পর ব্রিসবেনের ক্যাসিনোতে যান এক ক্রিকেটার। সেখানে প্রথমে কয়েকজন যুবকের সাথে ঝগড়া এবং পরবর্তীতে মারামারি করেন ওই ক্রিকেটার।

উল্লেখ, চলমান টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে এক নারীকে হোটেলে ডেকে এনে যৌন হয়রানি করায় সর্বপ্রথম আলোচনায় আসেন দানুশকা গুনাথিলাকা। অভিযোগের ভিত্তিতে ইতোমধ্যে এই ব্যাটারকে সব ধরনের ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ করেছে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ড। বর্তমানে অস্ট্রেলিয়ার কারাগারে আছেন গুনাথিলাকা। অস্ট্রেলিয়ায় আদালত থেকে মুক্তি পেতে তাকে আইনি সহায়তা দিচ্ছে এসএলসি।