আপনি পড়ছেন

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে ইংল্যান্ডের কাছে ১০ উইকেটের লজ্জাজনক পরাজয়ের পর ভারতীয় টিমের এমনিতেই নাকের পানি চোখের পানি একাকার হবার অবস্থা। ভারতীয় দলের ভক্ত-সমর্থকদেরও মন ভালো নেই। এ অবস্থায় তাদের দুর্ভোগ আরও বাড়িয়ে দিয়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভারতীয় টিমকে নিয়ে করা বিভিন্ন পক্ষের ট্রল। ইংল্যান্ড সমর্থকদের টুইটার হ্যান্ডেল বার্মি আর্মি থেকে শুরু করে ভারতীয় টিমকে ট্রল করতে ভুলেননি পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীও।

hardik pandya virat kohli and rohit sharmaম্যাচ হারার পর সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যাপক ট্রলিংয়ের শিকার ভারতীয় টিম

গতবছর ২৪ অক্টোবর দুবাইতে আইসিসি টুর্নামেন্টে ভারতকে ১০ উইকেটে হারায় পাকিস্তান। এবার একই ব্যবধানে ভারতকে হারালো ইংল্যান্ড। বিষয়টি ইঙ্গিত করে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরীফ টুইটারে লিখেছেন- তাহলে আসছে রোববার ১৫২/০ বনাম ১৭০/০ খেলা হচ্ছে।

দিনভর টুইটার ও অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়ায় সরব থাকলেও ম্যাচ শেষে ভারতীয় ইউজাররা এসব প্ল্যাটফর্ম থেকে একেবারে লাপাত্তা হয়ে যান। এ নিয়ে ভারতীয়দের খোঁচা মারতে ছাড়েনি ব্রিটিশরা। ইংল্যান্ড সমর্থকদের ফোরাম ইংল্যান্ড’স বার্মি আর্মি টুইটারে লিখেছে- ‘ভারত থেকে কেউ কি আমাদের ডিএম করতে পারেন? আপনাদের সাড়াশব্দ নেই দেখে টেনশনে আছি।’

বিভিন্ন সময়ে আইসিসি ও আম্পায়ারদের কাছ থেকে অন্যায্য সুবিধা পাবার অভিযোগের কারণে ভারতীয় টিমের বিষয়ে অনেকেই বীতশ্রদ্ধ। খেলার মাঠে ও নেট দুনিয়ায় ভারতের বর্তমান ও সাবেক কিছু খেলোয়াড়ের কা-কীর্তি দলটির প্রতি অন্যদের বিরক্তি আরও বাড়িয়েছে। নিউজিল্যান্ডের সঙ্গে পাকিস্তানের জয়ের পর সাবেক ভারতীয় ক্রিকেটার ইরফান পাঠান লেখেন- ‘প্রতিবেশীরা যতই ভালো খেলুক আর জিতুক, গ্রেস ব্যাপারটা তাদের মধ্যে নেই।’

ইরফানের টুইটের জবাবে আজকের ম্যাচের পর পাকিস্তানি সাংবাদিক ইহতিশাম উল হক লিখেছেন- গ্রেস তো সার্ফ খেয়ে ফেলেছে। ইংল্যান্ড টিম ভারতকে অনেকটা হোয়াইট ওয়াশ করেছে এমন বুঝাতে ডিটারজেন্ট পাউডারের কথা উল্লেখ করেন ইহতিশাম। পাকিস্তানি আরেক সাংবাদিক সুমেইরা খান ইংল্যান্ড ও পাকিস্তান দলের দুই অধিনায়কের ছবি পোস্ট করে লিখেছেন- ফাইনালিস্টস উইথ গ্রেস।

পাকিস্তানি বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ উদ্যোক্তা সুলেমান রাজা ইরফান পাঠানকে ট্যাগ করে লিখেছেন- এটা খুব কষ্টকর। তারপরও প্রতিবেশী হিসেবে জানতে চাইছি আপনার বৃহস্পতিবার কেমন চলছে? বিখ্যাত টিভি হোস্ট পিয়ের্স মরগ্যান লিখেছেন- ইন্ডিয়ান ক্রিকেট টুইটার হঠাৎ খুব নিরব হয়ে গেছে। পাকিস্তানি ক্রিকেটার শোয়েব আখতার ম্যাচ চলাকালীন সময়ে টুইট করেন- ভাইয়েরা, একজনকেও আউট করবে না তোমরা?

টুইটারে ক্রিকেট ভক্তদের অতি পরিচিত ইউজার নিউজিল্যান্ডের ডেনিস উইলিয়ামসন। পাকিস্তান টিমের থিম সং হয়ে ওঠা গান ‘দিল দিল পাকিস্তান’ এর আদলে নিজের হ্যান্ডলের নাম তিনি ‘দিল দিল ডেনিস্তান’ করেছেন। ভারত না থাকায় ফাইনালের আকর্ষণ কমবে এমন ইঙ্গিত দিয়ে ডেনিস লেখেছেন- ফাইনালের টিকেট হঠাৎ সস্তা হতে শুরু করেছে।

শ্রীলঙ্কার ক্রিকেট বিষয়ক সংবাদ পোর্টাল আইল্যান্ড ক্রিকেটের অ্যাডমিন ড্যানিয়েল আলেক্সান্ডার লিখেছেন- বাটলার রোববার মেলবোর্নে বাববের সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন। আর রোহিত সেদিন মুম্বাইয়ে নিজের বারবারের (নাপিতের) কাছে যাবেন।

ইংল্যান্ড ক্রিকেট টিমের অফিসিয়াল অ্যাকাউন্ট টুইট করেছে- হাউ ওয়াজ দ্যাট? আরেক ইউজার লিখেছেন- ইন্ডিয়ান টিমকে হোম ডেলিভারির জন্য জোমাটোতে অর্ডার প্লেস করা হয়েছে। পাকিস্তানের সাবেক তথ্যমন্ত্রী চৌধুরী ফাওয়াদ হুসেইন লিখেছেন- ইন্ডিয়া সেফ এক্সিট নিয়েছে। পাকিস্তানের কাছে হেরে দিল্লীতে ফিরলে বিপদে পড়তে হতো।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর