আপনি পড়ছেন

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে পাকিস্তানকে হারিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো চ্যাম্পিয়ন হয়েছে ইংল্যান্ড। ট্রফি পাওয়ার পর চলছিল বাঁধভাঙা উল্লাস। টিমের সবাই তাতে শামিল। একপর্যায়ে ইংল্যান্ড অধিনায়ক মঞ্চ ছেড়ে যেতে অনুরোধ করেন দলের দুই গুরুত্বপূর্ণ সদস্যকে। তারা দুজন চলে যাওয়ার পরই শুরু হয় শ্যাম্পেন উৎসব।

england team2আদিল রশিদ ও মঈন আলিকে সরিয়ে দিয়েই করা হয় শ্যাম্পেন উৎসব

ইংল্যান্ড দলের গুরুত্বপূর্ণ এই দুই সদস্য হলেন মঈন আলি ও আদিল রশিদ। যথাযথ সম্মান দেখিয়েই ইংলিশ অধিনায়ক জশ বাটলার তাদের পোডিয়াম ছাড়ার অনুরোধ করেন। বাটলার আগে থেকেই জানেন মঈন ও আদিল ধর্মীয় অনুশাসন বেশ ভালোভাবেই পালন করে থাকেন। মদ বা মদ জাতীয় পানীয় থেকে দূরে থাকেন পাক বংশোদ্ভুত এই দুই ক্রিকেটার। পুরো ইংলিশ দল তাদের এই ধর্মীয় বিশ্বাসকে সম্মান জানিয়ে থাকে। আগেও বিভিন্ন সময় এর প্রতিফলন দেখা গেছে। গত রোববারও তার ব্যত্যয় ঘটেনি।

যে কোনো সাফল্য উদযাপনে শ্যাম্পেনের বোতল খোলার রীতি রয়েছে ইংলিশদের। এ ধরনের পরিস্থিতিতে মইন ও আদিল দূরে সরে যান। সঙ্গীদের সুযোগ দেন আনন্দ উদযাপনের। অন্যদিকে অন্য সদস্যরাও লক্ষ্য রাখেন যেন তাদের ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত না লাগে।

adil moinদলের দুই গুরুত্বপূর্ণ সদস্য আদিল রশিদ ও মঈন আলি

২০১৯ সালে একদিনের বিশ্বকাপ জেতার পর প্রথমবারের মতো এ দৃশ্য সামনে এসেছিল। ইংল্যান্ডের তৎকালীন অধিনায়ক ইয়ন মর্গ্যান শ্যাম্পেন উৎসবের আগে মঈন ও রশিদকে মঞ্চ থেকে সরে যাওয়ার অনুরোধ করেছিলেন। সেই থেকে ইংল্যান্ড ক্রিকেট দলে এখন এটাই নিয়মে পরিণত হয়ে গেছে। বিষয়টি সব মহলের প্রশংসা কুড়িয়েছে।