আপনি পড়ছেন

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মো. শারফুদ্দিন আহমেদ বলেছেন, যেসব শিশু মোবাইলে আসক্ত তাদের মোবাইল ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা দিতে হবে। সরাসরি করা না গেলে শিশুদের দিনে সর্বোচ্চ দুই ঘণ্টা, তবে একটানা আধঘণ্টার বেশি মোবাইল ফোন ব্যবহার করতে দেওয়া যাবে না।

mobile childফাইল ছবি

১৭ নভেম্বর, বৃহস্পতিবার বিশ্ব শিশু দিবস-২০২২ উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) ‘শিশু স্বাস্থ্য, বিকাশ ও সুরক্ষা’ শীর্ষক আলোচনা সভায় এসব কথা বলেন তিনি।

অধ্যাপক ডা. মো. শারফুদ্দিন আহমেদ বলেন, ১৬ বছরের কম বয়সী শিশুদের হাতে মোবাইল ফোন দেওয়া ঠিক নয়। শিশুদের মোবাইল ফোন ব্যবহারে অজান্তেই তারা অপরাধে জড়িয়ে পড়ে। এ বয়সীদের ভালো-খারাপ বোঝার সক্ষমতা থাকে না।

তিনি আরও বলেন, ফেসবুকে কোনো ধরনের অ্যাবিউজ হলে বিচার হবে, এটা বেশি করে প্রচার করতে হবে। এটি প্রচার করতে পারলে শিশুদের ইন্টারনেট তথা সাইবার অপরাধ অনেকাংশে কমে যাবে।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় গ্রাম এলাকার ৪৬০ জন শিশুর ওপর করা গবেষণার তথ্য তুলে ধরেন অনুষ্ঠানে। গবেষণায় উঠে এসেছে, বাংলাদশের গ্রাম অঞ্চলের ১১ থেকে ১৭ বছর বয়সীদের প্রায় ৩৩ শতাংশ শিশুই ইন্টারনেট ব্যবহার করে। একইসঙ্গে তাদের মাঝে কমপক্ষে একটি, দুটি বা তিনটি সাইবার অপরাধের প্রবণতা ছিল যথাক্রমে ৫৯ শতাংশ, ৩৮ শতাংশ এবং ২৬ শতাংশ।

বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসক ডা. মুহাম্মদ ইব্রাহীম ইবনে তৌহিদ গবেষণার তথ্য তুলে ধরে বলেন, শিশুদের ৩৫ শতাংশ উৎপীড়ন, উপহাস, গুজব কিংবা অপমান, ২৯ শতাংশ অসৎ উদ্দেশ্যে বেনামে যোগাযোগ, ১১ শতাংশ যৌন-নিপীড়নমূলক বার্তা কিংবা মন্তব্য এবং ১৭ শতাংশ শিশু যৌনতাপূর্ণ ছবি বা ভিডিওর মাধ্যমে নির্যাতনের শিকার হচ্ছে।