আপনি পড়ছেন

সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে টুইটারে ফিরিয়ে আনা উচিত কি না এই বিষয়ে মতামত জানার জন্য একটি জরিপ শুরু করেছেন ইলন মাস্ক। ১৮ নভেম্বর, শুক্রবার রাতে শুরু করা ওই জরিপে মাস্ক তার অনুসারীদের কাছে সাবেক এই প্রেসিডেন্টের টুইটার অ্যাকাউন্ট পুনর্বহাল করা যায় কি না তা জানতে চেয়েছেন।

donald trump elon musk 1ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং ইলন মাস্ক

প্রাথমিক ফলাফলে দেখা গেছে, প্রায় শতকরা ৬০ ভাগ টুইটার ব্যবহারকারী ট্রাম্পকে ফিরিয়ে আনার পক্ষে ভোট দিয়েছেন। ল্যাটিন ভাষায় ‘ভক্স পপুলি, ভক্স ডেই’ লিখে তিনি টুইট করেছিলেন। এর অর্থ হলো, ‘মানুষের কন্ঠস্বরই, ঈশ্বরের কন্ঠস্বর।' এই জরিপে ২৪ ঘণ্টা পর্যন্ত মানুষ অংশ নিতে পারবে। 

এর আগে মাস্ক জানিয়েছিলেন, ট্রাম্পের টুইটার অ্যাকাউন্ট ফিরিয়ে দেওয়া হবে কি না সে বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি। তবে আগে নিষিদ্ধ হওয়া বিতর্কিত কিছু অ্যাকাউন্ট পুনর্বহাল করেছে টুইটার। এরমধ্যে রয়েছে ব্যঙ্গাত্মক ওয়েবসাইট ব্যাবিলন বি এবং কৌতুক অভিনেতা ক্যাথি গ্রিফিনের অ্যাকাউন্ট।

অবশ্য টুইটারের নতুন মালিক মাস্ক গত মে মাসে বলেছিলেন, তিনি ট্রাম্পের ওপর টুইটারের দেওয়া নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করবেন। গত বছরের জানুয়ারি মাসে মার্কিন কংগ্রেস ভবন ক্যাপিটল হিলে ট্রাম্প সমর্থকদের দাঙ্গার পর তার টুইটার অ্যাকাউন্ট স্থগিত করে দেওয়া হয়েছিল। কেবল টুইটারই নয় দাঙ্গায় উস্কানি দেওয়ার অভিযোগে ট্রাম্পকে ফেসবুকেও নিষিদ্ধ করা হয়েছিল। 

উল্লেখ্য, গত অক্টোবরে ৪ হাজার ৪০০ কোটি ডলারে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটার কিনে নিয়েছেন বিশ্বের এক নম্বর ধনী ইলন মাস্ক। এরপর থেকে টুইটার নিয়ে বিভিন্ন পরীক্ষা নিরীক্ষা করে যাচ্ছেন তিনি। 

সূত্র: রয়টার্স 

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর