আপনি পড়ছেন

কাতার বিশ্বকাপ শুরুর আগে ইনজুরি কেড়ে নিয়েছে পল পগবা, এনগোলো কান্তে, করিম বেনজেমার মতো তারকাদের। একের পর এক চোটাঘাতের ওপর শিরোপা ধরে রাখার মিশনে স্বপ্নের সূচনা করল ফ্রান্স। মঙ্গলবার রাতে ‘ডি’ গ্রুপের ম্যাচে অস্ট্রেলিয়াকে ৪-১ গোলে হারিয়ে দিয়েছে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নরা।

olivier giroud france 2022অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে এ রকম চারবার উল্লাস করেছে ফ্রান্স

ফরাসিদের দুর্দান্ত জয়ের নায়ক আদ্রিয়েন রাবিয়ত, কিলিয়ান এমবাপ্পে ও অলিভার জিরার্ড। শেষজন করেছেন জোড়া গোল। তার শেষ গোলটির উৎস এমবাপ্পে। ফরাসি তারকা নিজেও খুঁজে নিয়েছেন জালের ঠিকানা। মূলত এমবাপ্পের গতির ঝড়েই উড়ে গেছে সকারুসরা। টুর্নামেন্টে ফ্রান্সের শুরুটা এরচেয়ে দারুণ হতে পারতো না।

চ্যাম্পিয়নদের অবশ্য তাতিয়ে দিয়েছে অস্ট্রেলিয়াই। নয় মিনিটে ফ্রান্সের জালে বল পাঠিয়ে উচ্ছ্বাসে মেতে ওঠে হলুদ শিবির। অস্ট্রেলিয়াকে লিড এনে দেন গুডউইন। গোল হজমের পর সকারুসদের ওপর হিংস্র বাঘের মতো ঝাঁপিয়ে পড়েন দিদিয়ের দেশামের শিষ্যরা। এর সুফল পেতে খুব বেশি সময় লাগেনি।

world cup france australia olivier goalফ্রান্সের সর্বোচ্চ গোলদাতা এখন অলিভার জিরার্ড

২৭ মিনিটে আদ্রিয়েন রাবিয়েতের গোলে সমতায় ফেরে ফ্রান্স। ৩২ মিনিটে জিরার্ডের প্রথম গোলটিরও অ্যাসিস্ট ছিলেন তিনি। ম্যাচে ফিরতে এবার মরিয়া হয়ে পড়ে অস্ট্রেলিয়া। ভালো সুযোগও পেয়েছিল তারা। কিন্তু দুর্ভাগ্য সঙ্গী হয় তাদের। অস্ট্রেলিয়া ফরওয়ার্ড মিচেল ডুকের দারুণ শটটা প্রতিহত হয় সাইডবারে লেগে।

ফ্রান্সের তৃতীয় গোলটা যেন এর ঠিক বিপরীত। এমবাপ্পের দারুণ শর্ট বারে লেগে জড়িয়ে যায় পোস্টে। ম্যাচের বয়স তখন ৬৮ মিনিট। তিন মিনিটের মধ্যে ডাবলস পূরণ করেন জিরার্ড। তাতেই হলো দুর্দান্ত একটা রেকর্ড। কিংবদন্তি থিয়েরি অঁরিকে টপকে এসি মিলান স্ট্রাইকার হয়ে গেলেন ফ্রান্সের সর্বোচ্চ গোলদাতা (৫১)। বেনজেমার অভাবটা বুঝতেই দিলেন না জিরার্ড।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর