আপনি পড়ছেন

কাতার বিশ্বকাপে উড়ন্ত এক সূচনা করল ফেভারিট স্পেন। বুধবার রাতে উত্তর আমেরিকান জায়ান্ট কোস্টারিকাকে ৭-০ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে লা রোজারা। সাবেক চ্যাম্পিয়নদের দাপুটে এই জয়ের অন্যতম নায়ক গাবি। ম্যাচজুড়ে দুর্দান্ত খেলেছেন বার্সেলোনা ফরওয়ার্ড। গোল করে তিনি মনে করিয়ে দিলেন ব্রাজিল মহাতারকা পেলেকে।

spain gaviপেলের ৬৪ বছর পর গাবির অনন্য এক কীর্তি

১৯৫৮ সালে সবচেয়ে কম বয়সী ফুটবলার হিসেবে বিশ্বকাপে গোল করেন পেলে। তিনি ভাঙেন মেক্সিকোর ম্যানুয়েল রোসার গোলের রেকর্ড। ১৯৩০ সালে বিশ্বকাপের প্রথম আসরে আর্জেন্টিনার বিপক্ষে গোল করার দিন রোসার বয়স ছিল ১৮ বছর ৯৩ দিন। ২৮ বছর পর মেক্সিকান কিংবদন্তির রেকর্ড ভেঙে দেন পেলে।

বিশ্বকাপে সর্বকনিষ্ঠ গোলদাতাদের তালিকায় রোসা এখন দুইয়ে। তিনে চলে এসেছেন স্পেন মিডফিল্ডার গাবি। স্পেনের সর্বকনিষ্ঠ ফুটবলার হিসেবে বিশ্বমঞ্চে গোলের খাতা খুলেছেন তিনি। যিনি মনে করিয়ে দিলেন পেলের সবচেয়ে কম বয়সে গোলের রেকর্ড। নিজের প্রথম বিশ্বকাপ খেলতে এসে ১৭ বছর ২৩৯ দিন বয়সে গোল করেন ব্রাজিল ফুটবলের রাজারা।

ওয়েলসের বিপক্ষে কোয়ার্টার ফাইনাল গোল করেই ক্ষান্ত হননি পেলে। সেমিফাইনালে করেছেন দুর্দান্ত এক হ্যাটট্রিক। এরপর ফাইনালে জোড়া গোল। ব্রাজিল স্বাদ পায় প্রথম ট্রফির। গতকাল তার রেকর্ডটা আবার সামনে নিয়ে এলেন স্পেনের গাবি। কোস্টারিকার বিপক্ষে তার গোলটাও হলো দর্শনীয়।

দুর্দান্ত এক ভলিতে ৭৪ মিনিটে স্বপ্নের গোলটি করেন স্পেন মিডফিল্ডার গাবি। তার গোলের উৎস আলভারো মোরাটা। কোস্টারিকার জাল কাঁপানোর পর দারুণ এক কীর্তি হয়ে গেল গাবির। শুধু গোল করেই নয়, উজ্জীবিত ফুটবলে তিনি মোহিত করেছেন দর্শকদের। বিশ্বকাপের ইতিহাসে স্পেনের সবচেয়ে বড় জয়ে অবদান রাখা হলো তারও। স্বপ্নের মঞ্চে এরচেয়ে রঙিন অভিষেক হতে পারতো না গাবির।