আপনি পড়ছেন

ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ইরোপিয়ান ক্লাব ফুটবলে সবচেয়ে নামীদামি ক্লাবগুলোর মধ্যে অন্যতম। ইউরোপিয়ান ফুটবলে এই ক্লাবটির সোনালী দিনগুলো পেছনে ফেলে বিক্রির কথা শোনা যাচ্ছে কেবল অর্থের অভাবে! মূলত মালিকপক্ষের মতের অমিলের কারণেই ম্যানইউ বিক্রির জন্য প্রস্তুতি চলছে৷

manchester united 5বিগত বছরগুলোতে ধারাবাহিকভাবে প্রতিবাদ করে আসছেন ভক্তরা

গ্লেজার পরিবার, যারা ২০০৫ সালে ৭৯০ মিলিয়ন পাউন্ডে ক্লাবটি কিনেছিল, সেই মালিকপক্ষই ২০২২ সালে এসে বলছে ‘কৌশলগত’ কারণে এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তারা। ধারণা করা হচ্ছে, তারা ক্লাবকে চার বা সাড়ে চার বিলিয়ন ইউরোর বিনিময়ে বিক্রি করতে পারেন। যদিও কেউ কেউ এরচেয়ে বেশি অর্থ প্রস্তাবের কথা বলছে বলে জানিয়েছে একাধিক ব্রিটিশ গণমাধ্যম।

অন্যদিকে, এই পদক্ষেপকে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ভক্তরা স্বাগত জানিয়েছে বলে বুধবার রাতে খবর প্রকাশ করেছে বিবিসি নিউজ। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের আমেরিকান পরিবারের মালিকানার বিরুদ্ধে বিগত বছরগুলোতে ধারাবাহিকভাবে প্রতিবাদ করে আসছিলেন তারা। এরমধ্যে ক্লাবের বিরুদ্ধে বিস্ফোরকসব কথা বলে গেছেন কিংবদন্তি ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো।

এখন প্রশ্ন উঠেছে, ক্লাবটি কিনতে কে কে আগ্রহী হতে পারে? যুক্তরাজ্যের অন্যতম ধনী ব্যক্তি, স্যার জিম র‍্যাটক্লিফ ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের সম্ভাব্য নতুন মালিকদের মধ্যে অন্যতম বলে শোনা গেছে। নিয়মিতভাবে কেনা-বেচার খবরের সঙ্গে যে কয়েকটি নাম বারবার উচ্চারিত হয়েছে, তাদের মধ্যে তিনি শীর্ষে থাকা একজন।

স্যার জিম গত আগস্টে প্রথমবার ক্লাবটি কেনার বিষয়ে তার আগ্রহ প্রকাশ করেন। তার এক মুখপাত্র এ প্রসঙ্গে বলেছিলেন, ‘যদি ক্লাবটি বিক্রয়ের জন্য হয়, জিম অবশ্যই একজন সম্ভাব্য সেরা ক্রেতা হবেন।’ স্যার জিম নিজেও রেড ডেভিলসদের ভক্ত।

বর্তমান মালিকদের ক্লাবের সুবিধা এবং দলে বিনিয়োগের অভাবের কারণেই বিক্রি করার প্রস্তাবে সকলেই সম্মতি দিচ্ছে।