আপনি পড়ছেন

ইন্দোনেশিয়ায় ভয়াবহ ভূমিকম্পের ধ্বংসস্তূপ থেকে ছয় বছর বয়সী এক শিশুকে উদ্ধার করা হয়েছে। দুই দিন ধরে কোনো খাবার বা পানি ছাড়াই সে ধ্বংসস্তূপের নিচে আটকে ছিল। গতকাল বুধবার সন্ধ্যায় তাকে উদ্ধার করা হয়। খবর হিন্দুস্তানটাইমস।

six year old boy rescuedউদ্ধারের পর আজকাকে নিরাপদস্থানে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে

গত সোমবার ইন্দোনেশিয়ার পশ্চিম জাভা শহরে সিয়ানজুরে ৫ দশমিক ৬ মাত্রার শক্তিশালী ভূমিকম্প আঘাত হানে। এতে এখন পর্যন্ত ২৭১ জনের মারা যাওয়ার খবর পাওয়া গেছে। নিখোঁজ রয়েছেন আরও কয়েক ডজন মানুষ।

পশ্চিম জাভা কর্তৃপক্ষ জানায়, হতাহতদের উদ্ধারকাজ চালানোর সময় ভূমিকম্পের আফটার শকের কারণে তা ব্যাহত হচ্ছিল। তারপরও তারা উদ্ধার কাজ চালিয়ে যাচ্ছিলেন। ২৮ বছর বয়সী স্থানীয় স্বেচ্ছাসেবক জেকসেন জানান, উদ্ধারকাজ চালানোর সময় যখন আমরা বুঝতে পারি, ধ্বংসস্তূপের নিচে জীবিত কেউ আছে, তখন আমরা দ্রুত তাকে উদ্ধারে ব্যস্ত হয়ে পড়ি।

indonesia earthquake 1ভূমিকম্পে ভেঙে যাওয়া বাড়িঘর

এক ভিডিওতে দেখা গেছে, উদ্ধারকর্মীরা সিয়ানজুরের সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত জেলা কুজেনাংয়ের একটি ধ্বংসপ্রাপ্ত বাড়ি থেকে ছয় বছর বয়সী ছেলে আজকাকে টেনে তুলছেন। আজকার পরনে তখন ছিল নীল শার্ট ও ট্রাউজার। যে লোকটি তাকে ধ্বংসাবশেষের কাটা গর্ত থেকে টেনে তোলেন, তিনি বেশ কিছুটা সময় তাকে দুই হাতে আঁকড়ে ধরে বসে থাকেন।

জেকসেন বলেন, আজকা যেখানে আটকে ছিল সেখানে ঠিক মতো বাতাসও যাচ্ছিল না। এছাড়া জায়গাটি ছিল অন্ধকার ও গরম। আমরা আশা করিনি, ধ্বংসস্তূপের মধ্যে কেউ বেঁচে থাকবে। যদি আমরা জানতে পারতাম, তাহলে আরও আগেই তাকে উদ্ধারের চেষ্টা চালাতাম। তাকে উদ্ধার করতে পেরে সবাই আনন্দে কেঁদে ফেলে। আমাদের কাছে পুরো বিষয়টি অলৌকিক মনে হচ্ছিল। উদ্ধার করার পরে আজকাকে শক্তিবর্ধক পানীয় খেতে দেয়া হয়।

এদিকে আজকাকে উদ্ধারের কয়েক ঘণ্টা আগে তার মায়ের মৃতদেহ পাওয়া যায়। অন্যদিকে আজকাকে জীবিত উদ্ধার করা সম্ভব হলেও পাশেই তার মৃত দাদির সন্ধান পাওয়া যায়। ভূমিকম্পের কারণে বাড়ির দেয়াল ভেঙে তিনি মারা যান। তবে অন্য একটি দেয়ালের কারণে আজকা বেঁচে যায়।

পশ্চিম জাভার কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, ভূমিকম্পে নিহতদের মধ্যে অনেক শিশু রয়েছে। তাদের অনেকে স্কুলে ছিল। এখনও অনেকে নিখোঁজ রয়েছে। উদ্ধারকারী বাহিনী বৃষ্টি ও ভূমিকম্পের আফটার শকের মধ্যেও তাদের উদ্ধারকাজ অব্যাহত রেখেছে।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর