আপনি পড়ছেন

দীর্ঘ ১৫ বছর ধরে একটানা লোকসান গুণে আসছে সরকারি টেলিফোন সংস্থা বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ কোম্পনি লিমিটেড (বিটিসিএল)। অবশেষে ২০২১-২২ অর্থবছরে লাভের মুখ দেখল সংস্থাটি। ২০০৭-০৮ অর্থবছরে বিটিসিএলের লোকসান ছিল প্রায় ৩৫০ কোটি টাকা। সর্বশেষ অর্থবছরেও (২০২০-২১) বিটিসিএলের লোকসান ছিল ২৪৭ কোটি টাকা। এ বছর প্রতিষ্ঠানটি লাভ করেছে ৬ কোটি ৭২ লাখ টাকা। বিটিসিএলের বার্ষিক সাধারণ সভায় ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার এ তথ্য জানান।

btcl১৫ বছর পর লাভের মুখ দেখলো বিটিসিএল

মন্ত্রী বলেন, বিটিসিএলকে প্রতিযোগিতার জায়গায় নিয়ে আসতে নতুন প্রযুক্তির ব্যবহার থেকে শুরু করে সম্ভাব্য সব কিছুই করেছি। দেশব্যাপী বিটিসিএলের অবকাঠামোসহ বিশাল সম্পদ যথাযথ কাজে লাগিয়ে শিগগিরই অনুকরণীয় দৃষ্টান্ত স্থাপন করা হবে।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের অধীন রাষ্ট্রায়ত্ত্ব সকল প্রতিষ্ঠান বিটিসিএলের মতোই ঘুরে দাঁড়াবে এমন দৃঢ় প্রত্যাশা ব্যক্ত করে মোস্তাফা জব্বার বলেন, সরকারি প্রতিষ্ঠানের কাজ কেবল বাণিজ্য করা নয়, জনগণকে সেবা দেওয়া। বিটিসিএল লাভও করছে, সেবাও দিচ্ছে।

বিটিসিএলের ইন্টারনেটের প্রতি গ্রাহকের আগ্রহ বেশি। সারাদেশে বিটিসিএলের সাড়ে পাঁচ শতাধিক টাওয়ার রয়েছে। এসব টাওয়ার বিভিন্ন টেলিকম প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে শেয়ার করতে পারে সংস্থাটি।

প্রতিষ্ঠানটির ল্যান্ডফোন গ্রাহক অনেক কম, তবে বর্তমান সময়ে আলাপ অ্যাপসহ একাধিক সেবায় গ্রাহক বাড়ছে। ২০২০ সালের ডিসেম্বরে ল্যান্ডফোন গ্রাহকের সংখ্যা ছিল ৫ লাখ ৯৫ হাজার ৪৭৭। ২০১১ সালেও এ সংখ্যা ছিল ১০ লাখের মতো। ১০ বছরে ৫ লাখ ১০ হাজারের মতো গ্রাহক হারালেও নতুন নতুন উদ্ভাবনী সেবার কারণে আবারও গ্রাহক ফিরতে শুরু করেছে বিটিসিএলে।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর