আপনি পড়ছেন

পাকিস্তানকে এড়িয়ে চলার ভারতীয় সিদ্ধান্তে ক্ষুব্ধ হয়েছেন পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) চেয়ারম্যান রমিজ রাজা। তিনি বলেছেন, বিসিসিআই এ ধরনের পদক্ষেপ নিলে তারাও ভারতে অনুষ্ঠেয় বিশ্বকাপ বয়কট করবেন। আর পাকিস্তান না গেলে ভারতের বিশ্বকাপ কে দেখবে? খবর হিন্দুস্তান টাইমস।

ramiz raja jay shahরমিজ রাজা ও জয় শাহ

বোর্ড অব কন্ট্রোল ফর ক্রিকেট ইন ইন্ডিয়ার (বিসিসিআই) সচিব জয় শাহ গত মাসে মুম্বাইতে সংস্থার ৯১তম বার্ষিক সাধারণ সভার পরে বলেছিলেন, এশিয়া কাপের জন্য নিরপেক্ষ ভেন্যু নজিরবিহীন নয় এবং সিদ্ধান্ত নিয়েছি আমরা পাকিস্তান সফর করব না।

তিনি আরও মন্তব্য করেছিলেন, আমাদের দলের পাকিস্তান সফরের অনুমতির বিষয়ে সরকারই সিদ্ধান্ত নেয়, তাই আমরা সে বিষয়ে মন্তব্য করব না। তবে ২০২৩ সালের এশিয়া কাপের জন্য সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে যে টুর্নামেন্টটি একটি নিরপেক্ষ ভেন্যুতে অনুষ্ঠিত হবে। পাকিস্তানকে এড়িয়ে চলার সেই সিদ্ধান্তে এতদিন পর প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন রমিজ রাজা।

পিসিবি চেয়ারম্যান বলেন, ভারত যদি এশিয়া কাপ খেলতে পাকিস্তানে না যায়, তাহলে পাকিস্তানও বিশ্বকাপ খেলতে ভারতে যাবে না। এ সময় তিনি মনে করিয়ে দেন, পাকিস্তান না গেলে ভারতের মাটিতে বিশ্বকাপের দর্শকসংখ্যায়ও নিশ্চিতভাবেই ভাটা পড়বে।

pcb and bcci পিসিবি ও বিসিসিআই

আইসিসির নির্ধারিত সফরসূচি অনুযায়ী ২০২৩ সালের সেপ্টেম্বরে পাকিস্তানে এশিয়া কাপের ১৬তম আসর বসার কথা রয়েছে। পরের মাসে ভারতে ১৩তম ওয়ানডে বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হবে। এ দুই টুর্নামেন্টকে ঘিরে তর্ক-বিতর্কে মেতেছেন দুই দেশের ক্রিকেট বোর্ডের শীর্ষ কর্তাব্যক্তিরা।

গত মাসে জয় শাহের বক্তব্যের পরপরই পিসিবি থেকে প্রতিবাদ জানানো হয়েছিল। গত বৃহস্পতিবার রাতে পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যম উর্দু নিউজকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে বিষয়টির ব্যাপারে মুখ খোলেন পিসিবি চেয়ারম্যান রমিজ রাজা। সেখানে নিজেদের দেশে এশিয়া কাপ আয়োজন করার ব্যাপারে পাকিস্তান কোনও ধরনের নমনীয় হবে না বলে স্পষ্ট জানিয়ে দেন তিনি।

তিনি বলেন, আগামী বছর ভারতে অনুষ্ঠেয় বিশ্বকাপে যদি পাকিস্তান না খেলে, তাহলে সেটি কে দেখবে? এ বিষয়ে আমাদের অবস্থান স্পষ্ট। যদি তারা আসে, তাহলে আমরাও যাব। আর যদি তারা না আসে, তাহলে সেটি তাদের ব্যাপার। কিন্তু সেক্ষেত্রে বিশ্বকাপও আমাদের ছাড়া হবে।

পাকিস্তানি দলকে বিশ্বের অন্যতম সেরা দল দাবি করে তিনি বলেন, আমাদের দল এখন ভালো পারফরম্যান্স করছে। আমরা ক্রিকেটের বড় দলগুলোকে হারাচ্ছি। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ফাইনালও খেলেছি আমরা।

তবে পাকিস্তানে ভারতীয় দলের আসা না আসা নিয়ে এখন পর্যন্ত আনুষ্ঠানিক কোনও কথাবার্তা হয়নি বলে জানিয়েছেন রমিজ রাজা। তিনি বলেন, বিষয়টি নিয়ে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড বা এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিল কারও সাথেই আলোচনা হয়নি। তবে এ ধরনের আলোচনার সুযোগ হলে অবশ্যই আমরা তাতে অংশ নেব।

উল্লেখ্য, সূচি অনুযায়ী ২০২৫ সালে পাকিস্তানের চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির আয়োজন করারও কথা রয়েছে। সব কিছু ঠিক থাকলে সে দেশে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের প্রত্যাবর্তনের পর এটিই হবে পাকিস্তানে অনুষ্ঠিত প্রথম আইসিসি ইভেন্ট। কিন্তু তার আগের টুর্নামেন্টগুলোই যদি শঙ্কার মুখে পড়ে যায়, তাহলে এটির ভাগ্যও অনিশ্চিত হয়ে পড়বে।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর