আপনি পড়ছেন

পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান আজ শনিবার রাওয়ালপিণ্ডিতে লংমার্চের সমাবেশে অংশ নেওয়ার জোরালো ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন। জীবনের হুমকি সত্ত্বেও তিনি সমাবেশে ভাষণ দিতে বদ্ধপরিকর বলে জানিয়েছেন। তিনি পিটিআইয়ের নেতাকর্মীদের সমাবেশস্থলে জড়ো হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। দ্য ডন, জিও নিউজ, দ্য টেলিগ্রাফ।

imran khan 81পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান

ডনের খবরে বলা হচ্ছে, ইমরান খান গত ৩ নভেম্বর এক কর্মসূচিতে গুলিতে আহত হন। এখন তিনি প্রায় সুস্থ হয়ে উঠেছেন। নতুন নির্বাচনের দাবিতে তার দল রাওয়ালপিণ্ডিতে বড় সমাবেশ ডেকেছে। ইমরান খান শান্তিপূর্ণভাবে এই কর্মসূচি পালনের আহ্বান জানিয়েছেন জনগণের প্রতি।

এর আগে শুক্রবার সাবেক প্রধানমন্ত্রী বলেন, জীবনের ঝুঁকির মধ্যেই আহত শরীর নিয়ে তিনি রাওয়ালপিণ্ডিতে যেতে বদ্ধপরিকর। ইমরান বলেন, বর্তমান সময় পাকিস্তানের জন্য অত্যন্ত জরুরি। আমি রাওয়ালপিন্ডিতে যাচ্ছি। দেশের জন্য কায়েদ ই আজম ও আল্লামা ইকবাল যে স্বপ্ন দেখেছিলেন, তা আমরা বাস্তবায়ন করতে চাই। রাওয়ালপিন্ডিতে বক্তব্যে তিনি পরবর্তী কর্মসূচি ঘোষণা করবেন বলে জিও নিউজ জানিয়েছে।

ইমরান খান বলেন, কিছু লোক পিটিআই ও সেনাবাহিনীর মধ্যে বিবাদ বাধাতে চায়। সেনাবাহিনীর সাথে আমাদের কোনো সমস্যা নেই। আগাম নির্বাচন না দিলেও আগামী অক্টোবরে দেশে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। জনগণ ভোটের মাধ্যমেই ক্ষমতাসীনদের বিতাড়িত করবে। ন্যায়বিচার না পাওয়া পর্যন্ত আমাদের আন্দোলন চলবে।

পিটিআই শীর্ষ নেতার উরুতে দুটি গুলি বিদ্ধ হয়েছিল। ক্ষতস্থান নিরাময় হয়েছে। কিন্তু পায়ের তলায় যে গুলিটি লেগেছে সেটা খুবই ভোগাচ্ছে। তিনি এখনও হুমকির মধ্যে রয়েছেন ও নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদারে সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

খবরে বলা হচ্ছে, নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও পিটিআই পাঞ্জাব লংমার্চের প্রস্তুতি চূড়ান্ত করেছে। পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী চৌধুরী পারভেজ এলাহী আশ্বাস দিয়েছেন, মিছিলের জন্য কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তবে লংমার্চের আগেই ইসলামাবাদ শহর প্রশাসন রাস্তাঘাট বন্ধ করে দিয়েছে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রানা সানাউল্লাহ এক বক্তব্যে বলেন, ইমরানের সমাবেশ ডাকার কোনো কারণ নেই। সমাবেশ স্থগিত করা হয়েছে।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর