আপনি পড়ছেন

ইতালিতে টানা বর্ষণের পর ভূমিধসের ঘটনা ঘটেছে। আজ শনিবার (২৬ নভেম্বর) ভোরের দিকে নেপলসের কাছে ইসচিয়া দ্বীপ সংলগ্ন উপকূলীয় এলাকায় এই ভূমিধস হয়। এতে একজন নিহত এবং ১০ জন নিখোঁজ রয়েছেন। খবর বিবিসি।

italy bonnaইতালির ইসচিয়া দ্বীপে ভূমিধসে চাপা পড়াদের খোঁজে উদ্ধারকর্মীরা

কর্তৃপক্ষ জানায়, কয়েকদিন ধরে নেপলস, ক্যাম্পানিয়া ও ইসচিয়ার উপকূলীয় অঞ্চলে ভারি বৃষ্টিপাত হচ্ছিল। শনিবার ভোর থেকে ছয় ঘণ্টার ব্যবধানে ১৫৫ মিলিমিটার পর্যন্ত বৃষ্টিপাত রেকর্ড হয়। এরইমধ্যে দুই দফায় ভূমিধস ঘটেছে।

ইসচিয়ান স্থানীয় বাসিন্দা লিসা মোকিয়ারো জানান, ভোর ৩টার দিকে তুমুল বৃষ্টির মধ্যেই বজ্রপাতের বিকট আওয়াজ শুনতে পান। এরপর প্রথমবার ভূমিধস ঘটে। ঘণ্টা দুয়েক পর ভোর ৫টার দিকে দ্বিতীয় দফায় ভূমিধস ঘটেছে।

ভূমিধসে কাসামিকোলা শহরের বহু ঘরবাড়ি, গাড়ি ও গাছপালা ভেসে গেছে। মাটির নিচে চাপা পড়ে বেশ কয়েকজন। এরইমধ্যে মাটির নিচ থেকে এক নারীর মরদেহ উদ্ধার করেছেন উদ্ধারকর্মীরা।

ইতালির সিভিল সুরক্ষা দপ্তর জানায়, ভূমিধসের ঘটনায় অন্তত ১০ জন নিখোঁজ রয়েছেন। এসব ব্যক্তির প্রাণহানির আশঙ্কা করা হচ্ছে।

দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মাত্তেও পিয়ান্তেডোসি বলেন, ভূমিধসের কবলে পড়া এলাকার পরিস্থিতি ‘অত্যন্ত জটিল’। নিখোঁজ ব্যক্তিরা মাটির নিচে চাপা পড়েছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, জরুরি সেবা ও উদ্ধারকর্মীরা তল্লাশি চালিয়ে যাচ্ছেন। বৃষ্টিপাত ও শক্তিশালী বাতাস রোববার পর্যন্ত অব্যাহত থাকতে পারে বলে আবহাওয়া দপ্তর সতর্কতা জারি করেছে।