আপনি পড়ছেন

এই প্রজন্মের সেরা দল বলা হয় বেলজিয়ামকে। রক্ষণ, মধ্যমাঠ কিংবা ফরওয়ার্ড তিন বিভাগেই দারুণ সব খেলোয়াড় আছে তাদের। দলটিতে আছেন বিশ্বের অন্যতম সেরা গোলরক্ষক থিবাউট কোর্তোয়া। অনেকেই এই দলটিকে বলে থাকেন সোনালি প্রজন্মের বেলজিয়াম।

qatar world cup belgium teamমরক্কোর বিপক্ষে ২-০ গোলে হেরেছে বেলজিয়াম

সাড়ে চার বছর আগে একঝাঁক তারকা ও অভিজ্ঞ ফুটবলার নিয়ে রাশিয়ায় বিশ্বকাপ খেলতে গিয়েছিল বেলজিয়াম। দলটি সেমিফাইনালে উঠেছিল। কোয়ার্টার ফাইনালে তাদের হাত ধরেই বিদায় নেয় শিরোপা প্রত্যাশি ব্রাজিল। যে কৌশলে বেলজিয়ানরা সেলেকাওদের বিদায় করেছিল, ঠিক একইভাবে তাদের বিদায় করে ফ্রান্স।

আশা জাগিয়েও সেবার শিরোপা জিততে পারেনি বেলজিয়াম। এবারও তাদের নিয়ে অনেক প্রত্যাশা ছিল। কিন্তু এর ন্যূনতম প্রতিফলন দেখা যাচ্ছে না তাদের পারফরম্যান্সে। প্রথম ম্যাচে কানাডার বিপক্ষে বাজে ফুটবল খেলেও ভাগ্যবশত জিতে গেছে বেলজিয়াম। পরের ম্যাচটা তো হেরেই বসল তারা।

সোমবার রাতে আল থুমামা স্টেডিয়ামে মরক্কোর বিপক্ষে ২-০ গোলে হেরে অঘটনের শিকার হয়ছে ইউরোপিয়ান জায়ান্টরা। ম্যাচ শেষে দলটির কোচ রবার্তো মার্টিনেজ জানান, আফ্রিকান দলটির বিপক্ষে খেলোয়াড়রা মাঠেই নেমেছেন হারের ভয় নিয়ে। শেষ পর্যন্ত মনের বাঘ ও বনের বাঘ দুটোই খেয়েছে বেলজিয়ামকে। আশঙ্কা বাস্তবে পরিণত হয়েছে।

qatar world cup moroccoমরক্কোর খেলোয়াড়দের উদযাপন

ম্যাচ শেষে বেলজিয়ামের স্প্যানিশ কোচ মার্টিনেজ বলেছেন, ‘এই টুর্নামেন্টে আমরা এখনও সেরা বেলজিয়াম হতে পারিনি। আমার মনে হয়, আজ (রোববার রাতে) আমরা হারের ভয় নিয়ে খেলতে নেমেছিলাম…।’ হতাশা ভুলে শেষ ম্যাচের দিকে চোখ মার্টিনেজের। বলেন, ‘আমাদের এখন (মানসিকভাবে) শক্ত থাকতে হবে। ঐক্যবদ্ধ থাকা জরুরি। আমরা ক্রোয়েশিয়া ম্যাচের জন্য প্রস্তুত থাকব।’

দুই ম্যাচের একটিতে জিতলেও ‘এফ’ গ্রুপ টেবিলের তিনে আছে বেলজিয়াম। তাদের চেয়ে এক পয়েন্ট বেশি নিয়ে শীর্ষ দুই দল ক্রোয়েশিয়া ও মরক্কো। শেষ ম্যাচে ক্রোয়াটদের মুখোমুখি হবে বেলজিয়ানরা। ওই ম্যাচে জিততে না পারলে বড় বিপদ হতে পারে তাদের। ড্র করলেও তাকিয়ে থাকতে হবে অন্যের দিকে।