আপনি পড়ছেন

সব কোচেরই একটা না একটা তুরুপের তাস থাকে। কোনো কোনো কোচের একাধিক। স্পেন দলের প্রধান কোচ লুইস এনরিকের তেমনই একটা তাস আলভারো মোরাটা। প্রয়োজনের সময় ঠিকই বের করে আনেন। সেটা অনেক সময়ই কাজে লেগে যায়।

alvaro morataআলভারো মোরাটা

রোববার রাতে জার্মানির বিপক্ষে হাইভোল্টেজ ম্যাচে স্প্যানিশ কোচের তুরুতের তাস ছিলেন আলভারো মোরাটা। দ্বিতীয়ার্ধে বদলি হিসেবে মাঠে নেমেই গোল করলেন এই ফরোয়ার্ড। ম্যাচের ৬২ মিনিটে জর্ডি আলবার কাছ থেকে বল পেয়েই জার্মানদের জালের ঠিকানা খুঁজে নেন মোরাটা।

তাতেই হলো দারুণ এক কীর্তি। স্পেনের প্রথম ফুটবলার হিসেবে বিশ্বকাপে পরপর দুই ম্যাচে বদলি খেলোয়াড় হিসেবে গোল করলেন মোরাটা। বিশ্বকাপের ইতিহাসে এমন ঘটনা বিরল। ৯২ বছরের ইতিহাসে এই ঘটনা মোটে ছয়বার ঘটল। ঘটনার সাক্ষ্যি হলো আল বাইয়াত স্টেডিয়াম।

জার্মানি-স্পেন মহারণ প্রথমার্ধ কেটেছে গোলখরায়। দুই দলে যথেষ্ট সুযোগ তৈরি করলেও ভাঙছিল না ডেডলক। অবশেষে বেঞ্চ ছেড়ে উঠে আসার আট মিনিটের মাথায় গোলমুখ খুললেন মোরাটা। এই গোলের ওপর দাঁড়িয়ে জয়ের অপেক্ষাতেই ছিল প্রাক্তন ইউরো-বিশ্ব-ইউরো চ্যাম্পিয়নরা।

কিন্তু স্পেনের আশায় গুড়েবালি। অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ ফরোয়ার্ডের করা গোলটার শোধ দিয়ে দেয় জার্মানরা। ম্যাচটা শেষ পর্যন্ত ১-১ গোলে ড্র হয়। তাতে অবশ্য হতাশ স্প্যানিয়ার্ডরা। দলীয় হতাশা বাদ দিলে রাতটা মোরাটার জন্যও ছিল স্বপ্নের। এমন কীর্তি যে সচারচর দেখা যায় না।

কোস্টারিকাকে ৭-০ গোলে চূর্ণ করে কাতার বিশ্বকাপ শুরু করেছে স্পেন। ওই ম্যাচেও বদলি খেলোয়াড় হিসেবে জালের ঠিকানা খুঁজে নিয়েছিলেন মোরাটা। ম্যাচের শেষ মুহূর্তে দলের শেষ গোলটি করেছিলেন তিনি। টানা দ্বিতীয় ম্যাচে একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটালেন অভিজ্ঞ এই ফুটবলার।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর