আপনি পড়ছেন

ভারতের কর্ণাটক রাজ্যের একটি কলেজে এক মুসলিম শিক্ষার্থীকে ‘সন্ত্রাসী’ বলে কটাক্ষ করায় বরখাস্ত হয়েছেন অধ্যাপক। গত শুক্রবার বেঙ্গালুরুর মানিপাল ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজিতে এ ঘটনা ঘটে। খবর এনডিটিভি ও ইন্ডিয়া টুডে।

karnataka professor suspendedসন্ত্রাসী ছাত্র বলার পর প্রতিবাদ করছেন ছাত্র

খবরে জানা গেছে, গত শনিবার ক্লাসের শুরুতেই অভিযুক্ত অধ্যাপক ওই ছাত্রের নাম জিজ্ঞাসা করেন। সে তার নাম বললে মুম্বাইয়ে ২৬/১১ হামলায় ধরা পড়া সন্ত্রাসী আজমল কাসাবের সঙ্গে তুলনা করে অধ্যাপক ওই ছাত্রকে বলেন, তুমি তো কাসাবের মতোই!

অধ্যাপকের কাছ থেকে অপ্রত্যাশিত এ কথা শোনার পর ওই শিক্ষার্থী এর প্রতিবাদ করেন। তিনি একথা কিভাবে বলেন জানতে চাইলে অধ্যাপক বলেন, তিনি কৌতুক করে এ কথা বলেছেন। কিন্তু মুসলিম ওই ছাত্রের ভাষ্য, তাকে সন্ত্রাসীর সঙ্গে তুলনা করে অধ্যাপক তার ধর্মের অবমাননা করেছেন। কারণ ২৬/১১ কোনো পর্যায়েই কৌতুক ছিল না। একজন মুসলিম হয়ে প্রতিদিন এগুলো সহ্য করা যায় না। এগুলো মোটেও মজার ব্যাপার নয়।

এরপর ওই অধ্যাপক তার কথার জন্য ক্ষমা চাইতে থাকেন এবং এক পর্যায়ে ওই ছাত্রকে শান্ত করার জন্য অধ্যাপক বলেন, তুমি আমার ছেলের মতো। তখন ওই শিক্ষার্থী পাল্টা প্রশ্ন করেন, আপনি কি আপনার ছেলের সঙ্গে এভাবে কথা বলেন? তাকে সন্ত্রাসী নামে ডাকেন? তা যদি না বলতে পারেন, তাহলে কীভাবে এত শিক্ষার্থীর সামনে আমাকে আপনি এভাবে বলতে পারেন। আপনি আমার সাথে যে ব্যবহার করেছেন দুঃখ প্রকাশ দ্বারা তা কখনোই পরিবর্তন করা যাবে না।

এ ঘটনার সময় ক্লাসে উপস্থিত অন্য শিক্ষার্থীরা নিরব থেকে উভয়ের এ কথা শোনেন। তবে ওই ঘটনার ভিডিও ছড়িয়ে পড়লে পরিস্থিতি সামাল দিতে অধ্যাপককে সাসপেন্ড করে কলেজ কর্তৃপক্ষ। পাশাপাশি কলেজ কর্তৃপক্ষ পুরো ঘটনার তদন্ত করতে নির্দেশ দেয়।

এ প্রসঙ্গে কলেজের জনসংযোগ বিভাগের পরিচালক এস পি কর বলেন, আমাদের কলেজ সবধর্মকে সমান সম্মান করে। তাই আমরা এ ধরনের ঘটনার তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। সবদিক খতিয়ে দেখে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। তিনি জানান, ওই ছাত্রটিকে কাউন্সেলিং করা হচ্ছে এবং অধ্যাপককে কলেজ থেকে সাসপেন্ড করা হয়েছে।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর