আপনি পড়ছেন

ইসলামী ব্যাংকের শেয়ার ছেড়ে দিয়েছেন ব্যাংকটির সাবেক চেয়ারম্যান মুস্তাফা আনোয়ার। তিনি ব্যাংকটির প্রতিষ্ঠাতাদের একজন। উদ্যোক্তা শেয়ারধারীও ছিলেন তিনি।

islami bank bangladeshইসলামী ব্যাংক

সম্প্রতি ইসলামী ব্যাংক জানিয়েছে, এ বছরের আগস্ট মাসে মুস্তাফা আনোয়ারের কাছে ইসলামী ব্যাংকের শেয়ার ছিল ২ লাখ ২৬ হাজার ৩৩২টি। কিন্তু এক মাসের ব্যবধানে সেপ্টেম্বরে তার শেয়ার সংখ্যা দাঁড়ায় মাত্র ৩৩২টিতে। বাকি ২ লাখ ২৬ হাজার শেয়ার তিনি বিক্রি করে দিয়েছেন। এর মাধ্যমে ইসলামী ব্যাংকের সাথে সম্পর্ক গুটিয়ে নিচ্ছেন মুস্তাফা আনোয়ার।

ইসলামী ব্যাংক আরও জানিয়েছে, এ বছরের জুলাইয়ে ইউনিগ্লোব বিজনেস রিসোর্সের কাছে ব্যাংকটির শেয়ার ছিল প্রায় ৭ কোটি ৫২ লাখ। এক মাসের ব্যবধানে আগস্টে তা দাঁড়ায় ৩ কোটি ২২ লাখে। অর্থাৎ অর্ধেকের বেশি শেয়ার বিক্রি করে দিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। বর্তমানে ব্যাংকটির মাত্র ২ শতাংশ শেয়ার রয়েছে প্রতিষ্ঠানটির হাতে। ইসলামী ব্যাংকে ইউনিগ্লোবের পক্ষে পরিচালক হিসেবে রয়েছেন আবদুল মতিন।

সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, জামায়াত মুক্ত করতে ২০১৭ সালে ইসলামী ব্যাংকে বড় পরিবর্তন আনা হয়। তখন ইবনে সিনা ট্রাস্টের প্রতিনিধি হিসেবে ব্যাংকের চেয়ারম্যান করা হয়েছিল মুস্তাফা আনোয়ারকে। ব্যবস্থাপনা পরিচালক হন আবদুল মান্নান।

১৯৮৩ সালে ব্যাংকটির যাত্রা শুরু হয়। ২০১১ সাল পর্যন্ত একরকম নির্বিঘ্নে ব্যাংকটি পরিচালনা কার্যক্রম চলছওল। কিন্তু ২০১১ সালের নভেম্বরে পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিএসইসি একটি নিয়ম চালু করে। যেখানে বলা হয়, ব্যাংকটির পরিচালক হতে হলে অন্তত ২ শতাংশ শেয়ার থাকতে হবে।

এ নিয়ম করার পর ব্যাংকটিতে জামায়াতের একচ্ছত্র আধিপত্যে ভাটা পড়ে। আর ২ শতাংশ শেয়ার ধারণের সুযোগে ব্যাংকের মালিকানায় চলে আসে চট্টগ্রামভিত্তিক একটি গ্রুপ। সম্প্রতি ব্যাংকটিতে ঋণ অনিয়মের নানা ঘটনা সংবাদমাধ্যমের খবরে এসেছে।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর