আপনি পড়ছেন

কাতারকে হারিয়ে শেষ ষোলোর টিকিট কেটেছে নেদারল্যান্ডস। অন্য ম্যাচের ফল পক্ষে আসায় নিশ্চিত হয়েছে তাদের গ্রুপ সেরা হওয়াও। ‘এ’ গ্রুপের শেষ রাউন্ডের এই ম্যাচে ড্র করলেই নকআউট পর্বে উঠত নেদারল্যান্ডস। আল বাইত স্টেডিয়ামে মঙ্গলবার ২-০ গোলে জিতেই লক্ষ্য পূরণ করল ডাচরা।

nederland footballডাচরা এবার নকআউট পার হতে চায়

দারুণ এই প্রাপ্তির সঙ্গে তারা গড়ল নতুন রেকর্ডও। এখন পর্যন্ত মোট ১১ বার বিশ্বকাপে অংশ নিয়েছে নেদারল্যান্ডস। যেখানে কোনোবারই গ্রুপ পর্বে আটকা পড়তে হয়নি তাদের।

যার মধ্যে তিনবার রানার্সআপ (১৯৭৪, ১৯৭৮, ২০১০) হয় নেদারল্যান্ডস। এবার তাই ১১তম গ্রুপ পর্ব পেরিয়ে রোমাঞ্চিত ডাচ দলনেতা ভার্জিল ফন ডাইক, 'আমরা অন্য কিছু নিয়ে ভাবতে চাই না। এই জার্সিটা অনেক ভালোবাসার, অনেক আবেগের। নকআউটে উঠে আমরা আনন্দিত। এবার সামনের আরও কঠিন পথ পাড়ি দিতে হবে।'

একইদিন দারুণ রেকর্ড গড়েন নেদারল্যান্ডসের হয়ে গোল করা গাকপো। ম্যাচের ২৬তম মিনিটে তার গোলেই লিড নেয় লুইস ফন গালের দল। এরপর স্কোর ডাবল করেন ডি জং। কাতার একটি গোলের জন্য মরিয়া হয়ে উঠলেও সেই স্বাদটা পূরণ হয়নি তাদের।

গাকপো নেদারল্যান্ডসের চতুর্থ খেলোয়াড় হিসেবে বিশ্বকাপে টানা তিন ম্যাচে জালের দেখা পেয়েছেন। এ তালিকায় প্রথম তিনজন হলেন- ইয়োহান নিশকেন্স (১৯৭৪), ডেনিস বার্গকাম্প (১৯৯৪) ও ভেসলি স্নেইডার (২০১০)।

এদিকে বিশ্বকাপ থেকে কাতারের বিদায় নিশ্চিত হয়েছে আগের ম্যচেই। বিশ্বকাপের ইতিহাসে এই প্রথম স্বাগতিক দল হিসেবে গ্রুপ পর্বের সব ম্যাচ হারের অনাকাঙ্ক্ষিত রেকর্ডও গড়ল তারা।