আপনি পড়ছেন

পাকিস্তানের বেলুচিস্তান প্রদেশের কোয়েটায় পুলিশের ট্রাকে আত্মঘাতি বোমা হামলায় কমপক্ষে ৫ জন নিহত ও ২৮ জন আহত হয়েছে। নিহতদের মধ্যে পুলিশ সদস্য ছাড়াও কয়েকজন নারী-শিশু রয়েছে। আজ সকালে কোয়েটার বেলালি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিষিদ্ধ ঘোষিত সংগঠন টিটিপি এ হামলার দায় স্বীকার করেছে। খবর রয়টার্স।

pakistan quetta bombপাকিস্তানে পুলিশকে লক্ষ্য করে বোমা হামলা

পুলিশের একজন কর্মকর্তা জানান, টহলরত পুলিশের একটি ট্রাক লক্ষ্য করে আত্মঘাতি বোমা হামলা চালানো হয়। এতে পুলিশের একজন এসআই ছাড়াও বেশ কয়েকজন নিহত হন। আহত হয়েছেন কমপক্ষে ২৮ জন, যার মধ্যে ১৬ জন পুলিশ সদস্য। তারা পোলিও টিকাদানে নিয়োজিত একটি টিমের সুরক্ষায় দায়িত্ব পালন করছিলেন।

রয়টার্সের কাছে পাঠানো টেক্সট মেসেজে সন্ত্রাসবাদী গোষ্ঠী টিটিপি এ হামলার দায় স্বীকার করেছে। চলতি সপ্তাহের শুরুতে টিটিপি পাকিস্তান সরকারের সঙ্গে যুদ্ধবিরতি অবসানের ঘোষণা দিয়েছিল।

টিটিপি এর আগেও পাকিস্তানে পোলিও টিমকে লক্ষ্য করে বিভিন্ন সময় হামলা চালিয়েছে। টিকাদান কর্মসূচি পাকিস্তানিদের ওপর পশ্চিমা নজরদারির চক্রান্তের অংশ বলে প্রচারণা চালিয়ে আসছে টিটিপি ও সমমনা জঙ্গী সংগঠনগুলো।

আফগানিস্তান ও ইরান সীমান্তবর্তী বেলুচিস্তান প্রদেশের প্রধান শহর কোয়েটা। ধর্মীয় জঙ্গিগোষ্ঠীর পাশাপাশি বিচ্ছিন্নতাবাদী কয়েকটি সংগঠন ওই অঞ্চলে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে জড়িত রয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাতে স্থানীয় সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, পোলিও টিমের গাড়ির পেছনে টহলরত অবস্থায় পুলিশের ট্রাকটি বোমা হামলার শিকার হয়। বিস্ফোরণে ওই ট্রাক রাস্তার পাশের একটি খাদে পড়ে যায়। খবর পেয়ে পুলিশের বোমা নিষ্ক্রিয়করণ টিম ও উদ্ধারকারীরা দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছায়। বোমা হামলায় প্রায় ২৫ কেজি বিস্ফোরক ব্যবহৃত হয়েছে বলে প্রাথমিক তদন্তে জানা গেছে।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর