আপনি পড়ছেন

ইউক্রেনের যুদ্ধে পশ্চিমাদের সরাসরি সম্পৃক্ত হওয়ার অভিযোগ করেছেন রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরভ। পশ্চিমা বিশ্ব ইউক্রেনে অস্ত্র সরবরাহের পাশাপাশি ইউক্রেনীয় সেনাদের প্রশিক্ষণও দিয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

russian foreign minister sergei lavrov 2রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরভ

বৃহস্পতিবার সাংবাদিকদের সঙ্গে একটি ভিডিও কলে লাভরভ এই অভিযোগ করেন। তিনি বলেছেন, আপনাদের বলা উচিত নয় যে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং ন্যাটো এই যুদ্ধে অংশ নিচ্ছে না, বরং এরা সরাসরি এতে অংশ নিচ্ছে।

রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানিয়েছেন, কেবল অস্ত্র সরবরাহের মাধ্যমেই নয় সেনাদের প্রশিক্ষণ দিয়েও সাহায্য করা হচ্ছে। ইউক্রেনের সামরিক বাহিনীকে ব্রিটেন, জার্মানি, ইতালি এবং অন্যান্য দেশের ভূখণ্ডে প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে।

লাভরভ উল্লেখ করেন, ইউক্রেনের সামরিক সম্ভাবনাকে দুর্বল করে দেওয়া এবং পশ্চিমা অস্ত্রের চালানে বাধা দেওয়ার উদ্দেশ্যেই দেশটির জ্বালানিসহ অন্যান্য মূল অবকাঠামোতে হামলা করছে রাশিয়া।

লাভরভ জানিয়েছেন, এতকিছুর পরেও রাশিয়া সংঘাত নয় শান্তি চায়। তাই যেকোনো আলোচনার জন্য প্রস্তুত আছে তার দেশ। তিনি বলেন, ‘আমরা সবসময় বলেছি যে যারা আলোচনার মাধ্যমে নিষ্পত্তি করতে আগ্রহী তাদের কথা শুনতে প্রস্তুত আমরা।' 

এদিকে ন্যাটোকে বৃদ্ধি করার পশ্চিমা আকাঙ্ক্ষার নিন্দা জানিয়েছেন সের্গেই লাভরভ। তিনি বলেন, ‘১৯৯১ সালে মাত্র ১৬টি দেশ ন্যাটোর সদস্য ছিল। এখন ৩০টি হয়েছে। সুইডেন এবং ফিনল্যান্ডও ন্যাটোতে যোগ দেওয়ার জন্য অপেক্ষা করে আছে।' 

উল্লেখ্য, চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাসের শেষে ইউক্রেনে সামরিক অভিযানের নির্দেশ দিয়েছিলেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। ৯ মাসের বেশি সময় ধরে চলা এই যুদ্ধে হাজার হাজার মানুষ প্রাণ হারিয়েছে।

সূত্র: টিআরটি ওয়ার্ল্ড