আপনি পড়ছেন

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) চত্তরে প্রাইভেটকার চাপা দিয়ে টেনে নিয়ে রুবিনা আক্তার নামের এক নারীর মৃত্যু ঘটনায় মামলা হয়েছে। নিহত নারীর ভাই জাকির হোসেন বাদি হয়ে এ মামলা করেন।

road accident 14প্রাইভেটকার চালাচ্ছিলেন ঢাবির আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের চাকরিচ্যুত সহকারী অধ্যাপক আজহার জাফর শাহ

শুক্রবার রাতে এ মামলা করা হয় বলে জানিয়েছেন শাহবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নুর মোহাম্মদ। মামলায় আসামি করা হয়েছে রুবিনাকে প্রাইভেটকারের নিচে টেনে নিয়ে যাওয়া প্রাইভেটকারের চালক ও ঢাবির আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের চাকরিচ্যুত সহকারী অধ্যাপক আজহার জাফর শাহকে।

এদিকে রমনা বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার (ডিসি) মো. শহিদুল্লাহ বলেছেন, এটা কোনো দুর্ঘটনা নয়, এটা হত্যাকাণ্ড। তদন্ত চলছে, ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ঘটনার সময় জনতার হাতে গণধোলাইয়ের শিকার হওয়ায় তিনি এখন হাসপাতালে, তিনি সুস্থ হলে আমরা তাকে জিজ্ঞেস করব, কেন তিনি এমন করেছেন।

এর আগে শুক্রবার বিকেলে ঢাবির কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ এলাকায় একটি মোটরসাইকেলকে ধাক্কা দেয় প্রাইভেটকার চালক আজহার জাফর। ওই মোটরসাইকেলে ছিলেন রুবিনা। এ সময় তিনি মোটর সাইকেল থেকে ছিটকে পড়ে প্রাইভেটকারে নিচে আটকা পড়েন। কিন্তু চালক গাড়ি না থামিয়ে বেপরোয়া গতিতে টিএসসি দিয়ে নীলক্ষেত এলাকার দিকে চলে যান।

পরে নীলক্ষেত মোড়ে আটকা পড়লে চালককে গণপিটুনি দেয় উপস্থিত জনতা। পরে ওই নারীকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নেওয়া হয়।

নিউমার্কেট ট্রাফিক পুলিশের সার্জেন্ট মাহবুব আলম জানান, বিকেলে দেবর নুরুল আমিনের মোটরসাইকেলে করে তেজগাঁও থেকে হাজারীবাগের দিকে যাচ্ছিলেন ওই নারী।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর