আপনি পড়ছেন

ধীরে ধীরে কমছে তাপমাত্রা, বাড়ছে শীতের তীব্রতা। ডিসেম্বর মাসে দুটি মৃদু শৈত্যপ্রবাহের সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। এছাড়া শনিবার মৌসুমের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে চুয়াডাঙ্গায়, তাপমাত্রা ছিল ১১ দশমিক ৬ ডিগ্রি।

chuadanga১১ ডিগ্রিতে তাপমাত্রা, দুটি শৈত্যপ্রবাহের পূর্বাভাস

বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তরের আবহাওয়াবিদ মো. মনোয়ার হোসেন এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, এখন পর্যন্ত সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় চুয়াডাঙ্গায়, তাপমাত্রা ১১ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসে নেমে এসেছে।

তিনি আরও বলেন, আগামী দুইদিনের মধ্যে দক্ষিণপূর্ব বঙ্গোপসাগর এবং এর আশেপাশে এলাকায় একটি লঘুচাপ সৃষ্টি হতে পারে। বর্তমানে মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে। এতে আগামী পাঁচদিনের মধ্যে রাতের তাপমাত্রা আরও কিছুটা কমে যেতে পারে।

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশের ১৩টি অঞ্চলের তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে, যেখানে তাপমাত্রা ছিল ১৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে। এরমধ্যে তেঁতুলিয়া ১২ দশমিক ২, বদলগাছিতে ১২ দশমিক ৯, ঈশ্বরদীতে ১৩, যশোরে ১৩ দশমিক ৪, রাজারহাটে ১৩ দশমিক ৫,  গোপালগঞ্জে ১৪, রাজশাহী ও সৈয়দপুরে ১৪ দশমিক ৪, কুমারখালি, দিনাজপুর ও ডিমলায় ১৪ দশমিক ৫,  বরিশালে ১৪ দশমিক ৬ এবং সাতক্ষীরায় ১৪ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়। এছাড়া ঢাকার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১৯ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। 

আবহাওয়ার পূর্বাভাসে আরও বলা হয়েছে, চলতি মাসে দুটি মৃদু শৈত্যপ্রবাহের সম্ভাবনা রয়েছে। এ সময় তাপমাত্রা ৮ থেকে ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াসে নেমে আসতে পারে। শৈত্যপ্রবাহটি উত্তর-পশ্চিমাঞ্চল বিশেষ করে রাজশাহী, দিনাজপুর, লালমনিরহাট, ময়মনসিংহ, শ্রীমঙ্গল, যশোর, কুষ্টিয়া, পঞ্চগড় থেকে টাঙ্গাইল পর্যন্ত বিস্তৃত হতে পারে। এ তাপমাত্রা সর্বোচ্চ দুই দিন স্থায়ী হতে পারে।