আপনি পড়ছেন

দেশের তৈরি ওয়ালটন ই-বাইকের অনুমোদন দিয়েছে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহণ কর্তৃপক্ষ, বিআরটিএ। ফলে এখন থেকে প্রচলিত বাইকের মতোই বিআরটিএ’র নিবন্ধন নিয়ে রাস্তায় বৈধভাবে চলানো যাবে পরিবেশবান্ধব ই-বাইক। নতুন এই পণ্যের ব্র্যান্ড নাম তাকিওন। এর একটি মডেল ইতোমধ্যেই বাজারে পাওয়া যাচ্ছে।

walton e bike 2অনুমোদন পেল দেশের তৈরি ই-বাইক

নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ওয়ালটন জানিয়েছে, নতুন বাইকের দাম মানুষের ক্রয়ক্ষমতার মধ্যেই থাকবে। পরিবহন খরচ হবে বেশ সাশ্রয়ী। প্রতি কিলোমিটার পথ চলতে ব্যয় হবে মাত্র ১০ থেকে ১৫ পয়সা।

আরও জানিয়েছে, প্রচলিত পেট্রোল-অকটেন চালিত বাইকের মতো ওয়ালটনের ই-বাইক দুই কিংবা ১০ বছরের জন্য বিআরটিএ থেকে নিবন্ধন করা যাবে। এক্ষেত্রে ওয়ালটন ই-বাইকের নিবন্ধন খরচ প্রচলিত বাইকের চেয়ে বেশ কম হবে।

আকর্ষণীয় ডিজাইনের তাকিওন ১.০০ মডেলের ইলেকট্রিক বাইকে রয়েছে শক্তিশালী ১ দশমিক ২ কিলোওয়াট হাব মোটর ও নতুন প্রযুক্তির গ্রাফিন লেড অ্যাসিড ব্যাটারি। একবার চার্জে জলবে ৬০ থেকে ৭০ কিলোমিটার। গতিবেগ হবে ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ৫০ কিলোমিটার।

এতে থাকা পরিবেশবান্ধব গ্রাফিন বেসড ব্যাটারিটি ৬০০-৮০০ সাইকেল সমৃদ্ধ, যা নিশ্চিন্তে ৩ বছর ব্যবহার করা যাবে। বাইকটিতে রয়েছে পোর্টেবল চার্জার। ২২০ ভোল্টের বৈদ্যুতিক লাইন থেকেই এই ই-বাইকে চার্জ দেওয়া যাবে।

ই-বাইকটি কিনতে গুনতে হবে ১ লাখ ৪ হাজার ৯০০ টাকা।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর