আপনি পড়ছেন

আগামী রমজান মাসে নিত্যপণ্যের দাম ও সরবরাহ স্বাভাবিক রাখতে সব রকম চেষ্টা চলছে বলে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি জানিয়েছেন। আজ সচিবালয়ে বাণিজ্য-সহায়ক পরামর্শক কমিটির সভা শেষে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন।

commerce minister tipu monshiরমজানে পণ্য সরবরাহ স্বাভাবিক রাখতে চেষ্টা চলছে বলে জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, আজকের আলোচনায় অনেক সমস্যা নিয়ে কথা হয়েছে। ব্যবসায়ীরা এলসি ওপেনে সমস্যা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন। আলোচনায় যে সমস্যাগুলো উঠে এসেছে, যে মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে রিলেটেড, সেগুলো বাণিজ্য সচিব নোট করেছেন। সমস্যাগুলো চিহ্নিত করে আমাদের কর্মকর্তাদের পাঠাব।

তিনি বলেন, রমজানে যাতে সমস্যা না হয় সেজন্য এলসিসহ অন্যান্য বিষয়ে সংশ্লিষ্টরা দেখবেন বলে জানিয়েছেন। আমরা এসব বিষয়ে সতর্ক রয়েছি। শীঘ্রই আমরা বড় ব্যবসায়ীদের নিয়ে বসব। কোনো অবস্থানে রমজান মাসে যাতে সাধারণ ভোক্তাদের বিপদে পড়তে না হয়, সে বিষয়ে সতর্ক নজর রয়েছে।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, সবকিছু রাতারাতি বদলে দেওয়া যাবে না। বৈশ্বিক অবস্থা ও আন্তর্জাতিক বাজারে পণ্যের দাম কি সেটা আপনারা জানেন। লোকসান করে কেউ বিক্রি করবে না। তবে যৌক্তিক দামে যাতে যথেষ্ট পরিমাণে পণ্য বাজারে আসে সেটা আমাদের দরকার।

মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ ব্যাংক রমজান সামনে রেখে নিত্যপণ্যের বিষয়টি বিবেচনায় নিয়েছে। আজকের সভায় বাংলাদেশ ব্যাংকের যে প্রতিনিধি এসেছেন, তাদেরকে বলা হয়েছে। তারা কাল-পরশুর মধ্যে একটা পরিষ্কার নির্দেশনা দেবেন। রমজান মাসে দাম কমে যাবে তা বলছি না। তবে আজকের বৈশ্বিক পরিস্থিতিতে যে দাম সেটা মাথায় রেখে পণ্যের সরবরাহ নিশ্চিতের চেষ্টা চলছে।

এর আগে মন্ত্রী আমদানি-রপ্তানিসহ সার্বিক ব্যবসা-বাণিজ্য ও বিনিয়োগ সংক্রান্ত বিষয়ে বাণিজ্য-সহায়ক পরামর্শক কমিটির সভায় সভাপতিত্ব করেন। দেশে যদি কোনো আগাম পরিস্থিতি সৃষ্টি না হয় সেজন্য প্রতি তিন মাসে এ কমিটির একটি করে সভা হবে বলে মন্ত্রী সাংবাদিকদের জানান।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর