আপনি পড়ছেন

পুলিশ এক কিশোরকে মাথায় গুলি করে গুরুতর আহত করার ঘটনায় সহিংস বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়েছে গ্রিসে। সোমবার রাতে এ পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। যে পুলিশ তাকে গুলি করেছিল, এরই মধ্যে তাকে দায়িত্ব থেকে বরখাস্ত করে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। খবর দ্য গার্ডিয়ান।

fires burning on road outside hospital in thessalonikiরোমার রাস্তায় সহিংস বিক্ষোভ

স্থানীয় গণমাধ্যমগুলো জানায়, গতকাল সোমবার ভোরে বন্দর শহর থেসালোনিকির কাছে একটি পেট্রোল স্টেশনে এসে গাড়িতে জ্বালানি নেয় এক কিশোর। কিন্তু পরে সে জ্বালানির টাকা না দিয়েই সেখান থেকে চলে যাওয়ার চেষ্টা করে। এ সময় পুলিশ তাকে বাধা দেয়। এক পর্যায়ে এক পুলিশ তার মাথায় গুলি করে। পরে ওই কিশোরকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে থেসালোনিকিতে বামপন্থী কিছু সংগঠন একটি প্রতিবাদ মিছিলের আয়োজন করে, যাতে প্রায় দেড় হাজার মানুষ অংশ নেয়। তারা কিছু দোকান ভাঙচুর করে এবং পুলিশকে লক্ষ্য করে ককটেল নিক্ষেপ করে। পরে পুলিশ টিয়ারগ্যাস ও স্টান গ্রেনেড নিক্ষেপ করে তাদের জবাব দেয়।

এর আগে, শতাধিক বিক্ষোভকারী হাসপাতালের বাইরের প্রধান সড়ক অবরোধ করে ব্যারিকেড স্থাপন করে এবং আশপাশের বিনে আগুন ধরিয়ে দেয়। তারা পুলিশের দিকে বোতল ও ঢিল ছুড়তে থাকে। বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে পুলিশ তখনও স্টান গ্রেনেড ও টিয়ারগ্যাস ব্যবহার করেছিল।

শহরটির পুলিশ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, যে পুলিশ অফিসার তাকে মাথায় গুলি করেছে বলে অভিযোগ করা হয়েছে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে এবং দায়িত্ব থেকে বরখাস্ত করা হয়েছে। আজ মঙ্গলবার তাকে প্রসিকিউটরের সামনে হাজির করা হবে।

তবে দেশটির পুলিশ বিভাগ দাবি করছে, জ্বালানির বিল ১৭ ডলার না দিয়েই ওই কিশোর পালানোর চেষ্টা করলে পেট্রোল স্টেশনের কর্মীরা পুলিশকে বিষয়টি জানায়। তখন পুলিশ ওই কিশোরকে আটকানোর চেষ্টা করে। সে সময় ওই কিশোর গ্রেপ্তার এড়াতে পুলিশের মোটরসাইকেলে আঘাত করার চেষ্টা করে। পুলিশ নিজেদের আত্মরক্ষার্থেই দুটি গুলি চালিয়েছিল। এতে ওই কিশোর চালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে একটি দেয়ালে ধাক্কা খায় এবং গুরুতর আহত হয়।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর