আপনি পড়ছেন

রাশিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রী সের্গেই শোয়েগু বলেছেন, ইউক্রেনের সামরিক ব্যবস্থাপনাকে ধ্বংসের লক্ষ্যে তারা দেশটির সামরিক কাঠামোতে অব্যাহতভাবে হামলা চালিয়ে যাবেন। গতকাল মঙ্গলবার মস্কোতে সামরিক প্রধানদের সাথে এক বৈঠকে বক্তৃতাকালে তিনি এ কথা বলেন।

destroyed ukraine by russian attackরুশ হামলায় বিধ্বস্ত ইউক্রেনের একটি এলাকা

শোয়েগু বলেন, রাশিয়ার সেনাবাহিনী উচ্চ মাত্রার ও দূরপাল্লার অস্ত্র ব্যবহার করে ইউক্রেনের সামরিক অবকাঠামো এবং তার সহযোগী স্থাপনাগুলোকে টার্গেট করছে। কিয়েভের সামরিক শক্তি পুরোপুরি ধ্বংস করে দেওয়ার জন্যই তারা এ হামলা চালিয়ে যাচ্ছে। তবে রাশিয়ার সেনাবাহিনী কর্তৃক মুক্ত করা অঞ্চলগুলোর গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা রক্ষায় তারা চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।

রুশ প্রতিরক্ষামন্ত্রী দাবি করেন, গত দুই সপ্তাহে ইউক্রেন থেকে রাশিয়ায় ৩৩টি বড়-ক্যালিবার শেল নিক্ষেপ করা হয়েছে। তবে রাশিয়ার বিমান প্রতিরক্ষা বাহিনী তার বেশিরভাগই আটকে দিয়েছে। ইউক্রেনের এই হামলাগুলোকে আমরা পারমাণবিক সন্ত্রাসবাদ হিসেবে বিবেচনা করছি।

সবশেষ গত সোমবার রাশিয়ার সামরিক বিমানঘাঁটিতে ড্রোন হামলার বিষয়ে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলছে, ইউক্রেনের এই ধরনের সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড অবশ্যই বিপজ্জনক। রাশিয়া বিষয়টি গুরুতরভাবে বিবেচনা করছে এবং এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

একটি পৃথক বিবৃতিতে রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানায়, যুদ্ধরত দুই দেশের মধ্যে গতকাল মঙ্গলবার আরেক দফা যুদ্ধবন্দী বিনিময় হয়েছে। এ ধাপে ৬০ জন রুশ সৈন্য ইউক্রেনের কারাগার থেকে দেশে ফিরেছে। তাদের সবাইকে চিকিৎসা ও মানসিক সহায়তা এবং পুনর্বাসনের জন্য মস্কোতে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর