আপনি পড়ছেন

ভারতের বিপক্ষে সিরিজ জয়ের মিশনে দ্বিতীয় একদিনের ম্যাচে আগে ব্যাট করতে নামে বাংলাদেশ। রাসেল ডোমিঙ্গোর শিষ্যদের শুরুটা ভালো হয়নি। মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ৬৯ রানেই প্রথম সারির ছয় ব্যাটসম্যানকে হারিয়ে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে লাল সবুজ শিবির। এরপর মেহেদি হাসান মিরাজ ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের ব্যাটে প্রতিরোধ গড়েছে স্বাগতিকরা।

shantoশান্তকে আউট করার পর উল্লাসিত ভারত

এদিন ব্যাটিং অর্ডার পরিবর্তন করে ওপেনিংয়ে ব্যাট করতে নামেন আনামুল হক বিজয়। টিম ম্যানেজম্যান্টের আস্থার প্রতিদান দিতে পারেননি কুষ্টিয়ার এই ক্রিকেটার। ব্যক্তিগত ১১ রানে মোহাম্মদ সিরাজের বলে লেগ বিফোরের ফাঁদে পড়ে ফিরে যান আনামুল। তার আগে ৯ বলে দুই বাউন্ডারি মারেন তিনি।

আনামুলের বিদায়ের পর লিটন কুমার দাসও টিকে থাকতে পারেননি। সিরাজের দ্বিতীয় শিকারে পরিণত হন স্বাগতিক দলপতি। ২৩ বলে এক চারের সাহায্যে ৭ রান করেন এই ওপেনার। দলীয় ৩৯ রানে দুই ব্যাটসম্যানকে হারানোর পর দেখেশুনেই ব্যাট করছিলেন নাজমুল হোসেন শান্ত। কিন্তু উমরান মালিকের করা ইনিংসের ১৪তম ওভারের প্রথম ডেলিভারিতে বোল্ড হন শান্ত। প্যাভিলিয়ানে হাঁটার আগে তিন চারের মারে ২১ রান করেন তিনি।

এরপর অল্প সময়ের ব্যবধানে সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম ও আফিফ হোসেন ধ্রুবকেও হারায় বাংলাদেশ। রানের খাতা খুলতে পারেননি শেষেরজন। মুশফিক ও সাকিবের ব্যাট থেকে আসে যথাক্রমে ১২ ও ৮ রান। একই ওভারে এই দুইজনকে বিদায় করেন ওয়াশিংটন সুন্দর। ৬ উইকেট হারানো দলকে পথ দেখাচ্ছেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ও মেহেদি হাসান মিরাজ। এই দুইজনের ব্যাটে চড়ে দলীয় ১০০ পেরিয়েছে বাংলাদেশ।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর