আপনি পড়ছেন

আগামী ১৯ ফেব্রুয়ারি ২২তম রাষ্ট্রপতি নির্বাচন। আগ্রহী প্রার্থীদের ১২ ফেব্রুয়ারির মধ্যে নির্বাচনী কর্তার কাছে মনোনয়নপত্র জমা দিতে বলা হয়েছে। আজ বুধবার এই ভোটের তফসিল ঘোষণা করেছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল।

ellection commition presidentনির্বাচন কমিশন ভবনে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলছেন সিইসি কাজী হাবিবুল আউয়াল

রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের বিস্তারিত দিনক্ষণ নির্বাচন কমিশন সভায় চূড়ান্ত করে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান সিইসি।

এর আগে মঙ্গলবার জাতীয় সংসদের স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর সঙ্গে বৈঠক করেন কাজী হাবিবুল আউয়াল। আজ বুধবার সকাল ১১টায় প্রধান নির্বাচন কমিশনারের নেতৃত্বাধীন কমিশন সভায় বসে। সভা শেষে তফসিল তুলে ধরেন কাজী হাবিবুল আউয়াল।

ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, নির্বাচনে আগ্রহী প্রার্থীরা মনোনয়নপত্র জমা দিতে পারবেন ১২ ফেব্রুয়ারি। আর ১৩ ফেব্রুয়ারি যাচাই বাছাইয়ের পর মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করা যাবে ১৪ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত।

নির্বাচন পরিচালনা করবেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার। তিনি এ নির্বাচনের প্রধান ‘নির্বাচনী কর্তা’। নির্বাচনী কর্তার দপ্তরে (প্রধান নির্বাচন কমিশনারের অফিসে নির্ধারিত দিনে অফিস চলাকালে) মনোনয়নপত্র জমা দিতে হবে।

একজনের বেশি প্রার্থীর সংখ্যা না হলে তাকেই বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত ঘোষণা করা হবে। আর একাধিক প্রার্থী হলে বিধিমালা অনুযায়ী সংসদের অধিবেশন কক্ষে ভোট অনুষ্ঠিত হবে।

প্রসঙ্গত, ২০১৮ সালের ২৪ এপ্রিল দ্বিতীয় মেয়াদে বাংলাদেশের ২১তম রাষ্ট্রপতি হিসেবে শপথ নেন মো. আবদুল হামিদ। সংবিধানের ১২৩ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী, মেয়াদ অবসানের কারণে রাষ্ট্রপতি পদ শূন্য হওয়ার ক্ষেত্রে মেয়াদপূর্তির তারিখের ৯০ থেকে ৬০ দিন আগে নির্বাচন করতে হয়। সেই হিসাবে ২৪ জানুয়ারি থেকে ২২ ফেব্রুয়ারির মধ্যে বাধ্যতামূলক ভাবে এ নির্বাচন করবে কমিশন।