advertisement
আপনি পড়ছেন

ইসরাইল এবং ভারতের যৌথ উদ্যোগে একটি ট্যাংক বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র  তৈরির সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ভারতের হায়দ্রাবাদে ‘স্পাইক এমআর’ নামের এই ক্ষেপণাস্ত্রটি তৈরি করা হচ্ছে।

brahmos missile in chine boarder

ভারতীয় বিভিন্ন গণমাধ্যমে জানানো হয়, ইসরাইলের অ্যাডভান্সড ডিফেন্স সিস্টেম লিমিটেড ও ভারতের কল্যাণী স্ট্রাটেজিক সিস্টেম যৌথভাবে ‘স্পাইক এমআর তৈরির কাজ করবে।’

জানা গেছে, ভারতীয় সেনাবাহিনী গত এক বছর ধরে বহু পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালিয়েছে। ভারতের মরুভূমি এবং সমতল ভূমিতে এ পরীক্ষা চালানো হয়েছে।উৎপাদন শুরু হওয়ার পর মাসে প্রায় ২০০ ক্ষেপণাস্ত্র সরবরাহ করতে পারবে। এই ক্ষেপণাস্ত্র রফতানি করার পরিকল্পনাও করেছে দেশটির।

গত মার্চে ইসরায়েল ও ভারতের মধ্যে ২০০ কোটি ডলার এবং এপ্রিল মাসে ৬৩ কোটি ডলারের অস্ত্র চুক্তি করেছে ভারত। মার্চের চুক্তিকে ইসরাইলের ইতিহাসে সবচেয়ে বড় অস্ত্র বিক্রির চুক্তি হিসেবে অভিহিত করেছেন দেশটির সরকার। মোদিই ইসরাইল সফরকারী ভারতের প্রথম প্রধানমন্ত্রী।