আপনি পড়ছেন

শঙ্কাই সত্য হলো। নিষিদ্ধ করা হয়েছে জাতীয় দলের বাইরে থাকা পেসার শাহাদাত হোসেন রাজিবকে। গৃহকর্মী নির্যাতনের অভিযোগে আত্মগোপনে থাকা এই ক্রিকেটার আপাতত ক্রিকেট-সংশ্লিষ্ট কোনো কার্যক্রমে অংশগ্রহণ করতে পারবেন না। তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ আইনিভাবে নিরসন হওয়া পর্যন্ত ক্রিকেট থেকে দূরে থাকতে হবে শাহাদাতকে।

শাহাদাতের বিষয়ে এ সিদ্ধান্তের কথা সংবাদ মাধ্যমকে জানিয়েছেন বিসিবির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা নিজামুদ্দিন চৌধুরী। রোববার সংবাদ মাধ্যমকে তিনি বলেন, 'একজন ক্রিকেটারের বিরুদ্ধে শিশু নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে বলে আপনারা জানেন। সেই অভিযোগ নিয়ে সরকার সংশ্লিষ্ট বিভাগ তদন্ত করছে। বিষয়টি এখন তাদের অধীনে।'

চৌধুরী আরো বলেন, 'যতক্ষণ না আইনিভাবে বিষয়টির নিষ্পত্তি হয়, ততক্ষণ আমরা ক্রিকেট বোর্ডের যে কোনো কার্যক্রমে শাহাদাতের অংশগ্রহণ স্থগিত রাখবো। তাকে ক্রিকেট সংক্রান্ত কোনো উদ্যোগে সম্পৃক্ত রাখবো না।'

ফলে বিসিবির কোনো খেলা, অনুশীলন ক্যাম্প বা এ ধরনের কিছুতেই আপাতত দেখা যাবে না ২৯ বছর বয়সী এই পেসারকে।

এর আগে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন শাহাদাতের ভবিষ্যত নিয়ে এমনই ইঙ্গিত দিয়েছিলেন। তিনি জানিয়েছেন, শাহাদাত তার সাথে দেখা করেত চেয়েছিলেন। কিন্তু তিনি তাকে সে সুযোগ দেননি।

উল্লেখ্য, গত সপ্তাহে মিরপুর থেকে ১১ বছরের একটি শিশুকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। তার শরীরে নির্যাতনের চিহ্ন দেখা যায়। পরে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, হ্যাপী নামের ওই শিশু শাহাদের বাসায় গৃহকর্মী হিসেবে কাজ করতো। ঘটনার পর থেকেই শাহাদাদ স্বস্ত্রীক আত্মগোপনে আছেন। তিনি বাংলাদেশ জাতীয় দলের হয়ে ৩৮টি টেস্ট ও ৫১টি ওয়ানডে খেলেছেন।

 

আপনি আরো পড়তে পারেন

পাপন: শাহাদাতের পাশে নেই বিসিবি

ইয়ান পন্ট: আমির ওয়াসিমের চেয়েও সম্ভাবনাময়

আবার খেলতে চান শচিন!

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর