আপনি পড়ছেন

প্রাথমিকভাবে দেশের ১৪৬টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ফ্রি ওয়াইফাই সেবা চালু করেছে সরকার। রোববার সচিবালয়ে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে এর উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়।

free wifi

তরুণ প্রজন্মের কথা চিন্তা করেই ফ্রি ওয়াইফাই সেবা চালু করা হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ে তুলতে হলে ইন্টারনেটের বিকল্প নেই। দেশের তরুণ প্রজন্ম বিশেষ করে শিক্ষার্থীরা যেন সহজলভ্য উপায়ে এর সঠিক ব্যবহার করতে পারে, সেজন্য সরকার এ প্রকল্প হাতে নিয়েছে।

সজীব ওয়াজেদ জয় বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশের যখন যাত্রা শুরু হয়, তখন অনলাইন তো দূরের কথা, ইন্টারনেট সংযোগই ছিল না। পুরো দেশে মাত্র দশমিক তিন শতাংশ মানুষের ইন্টারনেট অ্যাক্সেস ছিল। আওয়ামী সরকারের কল্যাণে সেটি এখন ৬০ শতাংশে চলে এসেছে।

প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা বলেন, দেশের সব মানুষকে ইন্টারনেটের আওতায় আনতে প্রত্যন্ত গ্রাম পর্যন্ত ফাইভার (তার বা ক্যাবল) নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। দেশে এখন ১০ কোটি মানুষ ইন্টারনেট ব্যবহার করছে। সরকার চাচ্ছে ১৬ কোটি মানুষকেই এর আওতায় নিয়ে আসতে।

প্রসঙ্গত, ২০১৮ সালের জুলাইয়ে প্রায় ৪৫ কোটি টাকা ব্যয়ে এই প্রকল্পটি হাতে নেয়া হয়েয়। প্রকল্পের আওতায় দেশের ৫৬৭টি স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ে ফ্রি ওয়াইফাই স্থাপন করা হবে।