আপনি পড়ছেন

করোনার মহামারির কারণে বাংলাদেশসহ ২৩টি দেশের নাগরিকদের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে মালয়েশিয়ার সরকার। সেই নিষেধাজ্ঞা এখনো বহাল রয়েছে এবং পরবর্তী নির্দেশনা না দেওয়া পর্যন্ত তা বহাল থাকবে বলে জানিয়েছেন ঢাকাস্থ মালয়েশীয় দূতাবাস।

bangladeshi expatritate malaysiaমালয়েশিয়ায় বাংলাদেশি শ্রমিক

আজ শনিবার ঢাকায় অবস্থিত মালয়েশিয়ার হাইকমিশন এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে।

বাংলাদেশি গণমাধ্যমের বরাত দিয়ে বিজ্ঞপ্তিতে মালয়েশীয় হাইকমিশন জানিয়েছে যে, বাংলাদেশসহ যে ২৩টি দেশের নাগরিকদের ওপর মালয়েশিয়ায় প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়, সেসব দেশে করোনাভাইরাসের প্রকোপ সবচেয়ে বেশি। এমতাবস্থায় দেশগুলোর নাগরিকদের ওপর মালয়েশিয়া সরকারের আরোপিত প্রবেশ নিষেধাজ্ঞা বহাল রয়েছে।

তবে জরুরি প্রয়োজেনে কিংবা বিশেষ কোনো পরিস্থিতির ক্ষেত্রে সে দেশটিতে প্রবেশ করা যেতে পারে। সেক্ষেত্রে মালয়েশিয়ার ইমিগ্রেশনের অনুমতি নিতে হবে। এ ছাড়া যেসব বিদেশি কর্মীর ভিসার মেয়াদ শেষ হয়েছে, ভিসা কার্যক্রম পুনরায় শুরু হলে তাদের জন্য মালয়েশীয় কর্তৃপক্ষের কাছে অনুরোধ করতে পারে সংশ্লিষ্ট কোম্পানি।

flag malaysiaমালয়েশিয়ার পতাকা

অন্যদিকে, নিষেধাজ্ঞার আওতায় থাকা দেশগুলো থেকে মালয়েশিয়ার কোনো নাগরিক যদি নিজ দেশে ফিরে যান, সেক্ষেত্রে তাকে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে।

বাংলাদেশ ছাড়া অন্য যে দেশগুলোর নাগরিকদের ওপর মালয়েশীয় কর্তৃপক্ষ নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে, সেগুলো হলো- পাকিস্তান, তুরস্ক, জার্মানি, ইরাক, ফিলিপাইন, ভারত, পেরু, ইতালি, সৌদি আরব, রাশিয়া, কলম্বিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা, আর্জেন্টিনা, মেক্সিকো, চিলি, ইরান, ইন্দোনেশিয়া, যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন, ব্রাজিল, স্পেন ও ফ্রান্স।

প্রসঙ্গত, বিদেশি নাগরিকদের প্রবেশে কড়াকড়িতে এর আগে মালয়েশিয়া সরকার রিকভারি মুভমেন্ট কন্ট্রোল অর্ডার (আরএমসিও) জারি করে। আগামী ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত সেই আরএমসিওর মেয়াদ বাড়ানো হয়েছে।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর