আপনি পড়ছেন

বাংলাদেশের ক্রিকেটে সব চেয়ে খারাপ সময়ই বোধহয় যাচ্ছে! সোহাগ গাজীর পর এবার সন্দেহজনক বোলিং অ্যাকশনের অভিযোগ উঠলো ডানহাতি পেসার আল আমিনের বিরুদ্ধেও। মাঠে একের পর এক হার তার মধ্যে এমন দুঃসংবাদ; এমন খারাপ সময় আসলেই আগে আসেনি কোনোদিন।

আইসিসির নিয়ম অনুযায়ী সোহাগের মতো আল আমিনকেও ২১ দিনের মধ্যে বায়ো-মেকানিকস পরীক্ষায় নামতে হবে। তবে পরীক্ষা সম্পন্ন হওয়া পর্যন্ত খেলে যেতে পারবেন আল আমিন।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে থাকা বাংলাদেশ স্বাগতিকদের বিপক্ষে সিরিজের প্রথম টেস্টে ১০ উইকেটে হেরেছে। ওই ম্যাচেই আল আমিনের বল সন্দেহজনক বলে অভিযোগ করেছেন আম্পায়াররা। অভিযোগের লিখিত প্রতিবেদন বাংলাদেশের ম্যানেজার সাবেক অধিনায়ক হাবিবুল বাশারের হাতে পৌঁছে দেয়া হয়েছে।

সম্প্রতি বেশ কয়েকজন বোলার সন্দেহজনক বোলিং অ্যাকশনের জন্য অভিযুক্ত হয়েছেন। আল আমিন তাদের মধ্যে নতুন সংযোজন। কিন্তু এতোদিন অভিযুক্ত হওয়া সবাই স্পিনার। আল আমিনই একমাত্র পেসার। দুদিন আগে অবৈধ বোলিং অ্যাকশন প্রমাণিত হওয়ায় পাকিস্তানি স্পিনার সাঈদ আজমলকে নিষিদ্ধ করেছে আইসিসি।