আপনি পড়ছেন

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) নৃবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষক অধ্যাপক রাশীদ মাহমুদ আর নেই। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাহি রজিউন। বুধবার সন্ধ্যায় হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে হাসপাতালে নেওয়া হয়। এ সময় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। তিনি স্ট্রোক করে মারা গেছেন বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।

professor rasheed mahmudঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নৃবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষক অধ্যাপক রাশীদ মাহমুদ

জানা যায়, মৃত্যুর সময় সাতক্ষীরার শ্যামনগরে গবেষণার জন্য ফিল্ড ওয়ার্কে ছিলেন তরুণ এই অধ্যাপক। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৪৬ বছর।

তার মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নৃবিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. ফারহানা বেগম।

তিনি বলেন, আমি কোভিড-১৯ আক্রান্ত। বুধবার সকালেই ফোন করে আমার খোঁজখবর নিয়েছে রাশীদ। এমন একজন স্বাভাবিক ও প্রাণবন্ত মানুষের মৃত্যুতে খুব খারাপ লাগছে। তার মৃত্যুতে আমরা গভীরভাবে বেদনাহত।

এদিকে, নৃবিজ্ঞান বিভাগ সূত্রে জানা যায়, সাতক্ষীরার শ্যামনগরে গবেষণার জন্য ফিল্ড ওয়ার্কে ছিলেন অধ্যাপক রাশীদ মাহমুদ। বুধবার সন্ধ্যার দিকে সেখানে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। পরে তাকে শ্যামনগর উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। এ সময় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ বিষয়ে শ্যামনগর উপজেলার স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা জানান, মৃত অবস্থায় তাকে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনা হয়। ময়নাতদন্ত না করে বলা যাচ্ছে না যে, তিনি আসলে কী কারণে মারা গেছেন।

প্রসঙ্গত, অধ্যাপক রাশীদ মাহমুদের বাড়ি ফেনী জেলায়। তার স্ত্রী ও দুই সন্তান রয়েছে। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নৃবিজ্ঞান বিভাগের তৃতীয় ব্যাচের শিক্ষার্থী ছিলেন।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর