আপনি পড়ছেন

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনে চিত্রনায়ক জায়েদ খানের প্রার্থিতা বাতিল করে চিত্রনায়িকা নিপুণ আক্তারকে সাধারণ সম্পাদক পদে বিজয়ী ঘোষণা করে নির্বাচনী আপিল বোর্ড। তবে সেই সিদ্ধান্ত স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট। জায়েদ খানের করা রিটের প্রাথমিক শুনানি নিয়ে আজ সোমবার এ আদেশ দেওয়া হয়।

nipun akter fdc electionগতকাল রোববার সাধারণ সম্পাদক হিসেবে শপথ ও দায়িত্ব নেন নিপুণ আক্তার

এদিন বিচারপতি মামনুন রহমান ও বিচারপতি খোন্দকার দিলীরুজ্জামানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন। একই সঙ্গে সমাজসেবা অধিদপ্তরের চিঠি এবং আপিল বোর্ডের সিদ্ধান্ত কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না— তা জানতে চেয়ে রুল দিয়েছেন আদালত।

এর আগে আজ সোমবার গত ২ ফেব্রুয়ারি সমাজসেবা অধিদপ্তর থেকে পাঠানো চিঠি এবং গত ৫ ফেব্রুয়ারি আপিল বোর্ডের সিদ্ধান্তের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে রিট করেন জায়েদ খান।

এদিন আদালতে জায়েদ খানের পক্ষে শুনানি করেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী আহসানুল করীম ও আইনজীবী নাহিদ সুলতানা। এ ছাড়া তাদের সঙ্গে ছিলেন আইনজীবী মজিবুল হক ভুঁইয়া। অপরদিকে, শুনানিতে নিপুণের পক্ষে ছিলেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী রোকনউদ্দিন মাহমুদ।

শুনানি শেষে সংবাদ মাধ্যমকে বিষয়টি জানান জ্যেষ্ঠ আইনজীবী আহসানুল করিম। তিনি বলেন, গত ২ ফেব্রুয়ারি সমাজসেবা অধিদপ্তর নিপুণ আক্তারের অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে এক চিঠি পাঠায়। সেখানে আপিল বোর্ডকে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়ার এখতিয়ার দেওয়া হয়।

এরপর গত ৫ ফেব্রুয়ারি জায়েদ খানের প্রার্থিতা বাতিল করে আপিল বোর্ড। একই সঙ্গে নিপুণ আক্তারকে বিনা প্রতিদ্বিন্দ্বিতায় বিজয়ী ঘোষণা করা হয়। সমাজসেবা অধিদপ্তরের ওই চিঠি এবং আপিল বোর্ডের ওই সিদ্ধান্তের কার্যকারিতা আজ স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট।

একই সঙ্গে ওই চিঠি এবং আপিল বোর্ডের সিদ্ধান্ত কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না— সেটা জানতে চেয়ে রুল দিয়েছেন আদালত। বিবাদীদের আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে, বলেন আইনজীবী আহসানুল করিম।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর