আপনি পড়ছেন

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাম্প্রতিক নির্বাচন নিয়ে বিতর্ক যেন থামছেই না। ইতোমধ্যে বিষয়টি দেশের উচ্চ আদালত পর্যন্ত গড়িয়েছে। এর মধ্যেই এবার নবনির্বাচিত কমিটির সহ-সভাপতির পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিয়েছেন চিত্রনায়ক রুবেল। এর দুই দিন আগে গত বৃহস্পতিবার পদত্যাগ করেন রোজিনা।

dipjol rubel and mousumiচিত্রনায়ক রুবেল, ফাইল ছবি

গত ২৮ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত নির্বাচনে মিশা সওদাগর ও জায়েদ খান প্যানেল থেকে অংশ নিয়ে সহ-সভাপতি পদে বিজয়ী হয়েছিলেন রুবেল। একই প্যানেল থেকে কার্যকরী সদস্য পদে নির্বাচিত হয়েছিলেন রওশন আরা রেণু ওরফে রোজিনা।

এ বিষয়ে আজ শনিবার, ১২ ফেব্রুয়ারি সংবাদ মাধ্যমকে রুবেল বলেন, শিল্পী সমিতির নির্বাচনের পর থেকে নানা নোংরামি লক্ষ করছি। এসব দেখে বিরক্ত হয়ে গেছি। অনেক অনাকাঙ্ক্ষিত ও বিতর্কিত পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে।

rowshan ara renu rozinaরোজিনা, ফাইল ছবি

তিনি বলেন, আগামীকাল আদালতে কে জয়ী হবে, আমি জানি না। এ জন্য তার আগেই পদত্যাগের সিদ্ধান্ত নিলাম। যাতে কেউ বলতে না পারে যে, এই কারণে বা সেই কারণে পদত্যাগ করেছি। এ বিষয়ে দুই একদিনের মধ্যেই চিঠি পাঠিয়ে দেব। এই রকম দ্বন্দ্বের মাঝে থাকার ইচ্ছা আমার নেই।

একটি গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়েছে যে, আপনি আর কখনো এফডিসিতে আসবেন না। এ বিষয়ে কী বলবেন? ক্যারাতে প্রশিক্ষক রুবেল বলেন, কাজ ছাড়া এমনিতেই এফডিসিতে আসা হয় খুব কম। তবে শুটিং না থাকলে আর কোনোদিন আসব না। ব্যক্তিগত ব্যস্ততা অনেক বেড়েছে। ক্যারাতে প্রশিক্ষণের জন্য সারাদেশে যাওয়ার কারণে ব্যস্ত থাকতে হয়। এমন অবস্থায় শিল্পী সমিতিতে সময় দেওয়া খুব কঠিন। অবশ্য আমি চলচ্চিত্রের স্বার্থে সব সময় অন্যদের পাশে থাকব।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়ে শিল্পী সমিতি থেকে পদত্যাগ করেন রোজিনা। তিনিও বলেন, ব্যস্ততা বেড়ে গেছে, সমিতিতে সময় দেওয়া কষ্টকর হয়ে যাবে। কারও কারণে নয়, নিজের ব্যস্ততার কারণেই পদত্যাগ করছেন।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর