আপনি পড়ছেন

প্রায় দুই বছর আগে একটি মহিষ হারিয়ে যায়। ওই মহিষটির মালিক দাবি করেছেন, মহিষটি খুঁজে পাওয়া গেছে। কিন্তু মহিষটি বর্তমানে যার কাছে আছে সে কোনোভাবেই তার দাবি ছাড়তে রাজি নয়। এ পরিস্থিতিতে পুলিশ মহিষটির ডিএনএ টেস্ট করার নির্দেশ দিয়েছে। খবর জিনিউজ।

buffaloফাইল ছবি

ভারতের মধ্যপ্রদেশের শামলি এলাকার চন্দ্রপাল কাশ্যপ নামের এক শ্রমিকের দায়ের করা অভিযোগ থেকে জানা যায়, করোনা মহামারি চলাকালে ২০২০ সালের ২৫ আগস্ট তার গোয়াল থেকে তিন বছরের একটি মহিষ চুরি হয়। পরে পাওয়া গেলেও সাহারানপুরের সতবীর সিং দাবি করেন, এটি তারই মহিষ।

করোনা মহামারির কারণে অভিযোগটি খতিয়ে দেখতে দেরি হয়ে যায়। সম্প্রতি এ অভিযোগের বিষয়টি সামনে আসে।

dna testডিএনএ পরীক্ষা

শামলির এসপি, সুকৃতি মাধব সঠিক মালিক খুঁজে বের করতে ওই মহিষের ডিএনএ পরীক্ষার নির্দেশ দিয়েছে। কাশ্যপের কাছে থাকা মা মহিষেরও ডিএনএ পরীক্ষার নির্দেশ দেওয়া হয়।

এসপি মাধব বলেন, আসল মালিককে খুঁজে বের করা সত্যিই একটি চ্যালেঞ্জ ছিল। তবে যেহেতু কাশ্যপ দাবি করেছেন, ওই মহিষটির মা এখনও বেঁচে আছে। তাই আমরা উভয় মহিষের ডিএনএ পরীক্ষা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। ওই ফলের ভিত্তিদে আমরা অভিযোগ নিষ্পত্তির চেষ্টা করব।

এদিকে কাশ্যপকে এ মহিষের ব্যাপারে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি বলেন, প্রতিটি মহিষেরই আলাদা বৈশিষ্ট্য রয়েছে। এর বা পায়ে দাগ আছে এবং লেজের প্রান্তে একটি সাদা প্যাচ রয়েছে। সবচেয়ে বড় কথা হলো স্মৃতি। আমি মহিষটির কাছে গেলেই সে আমাকে চিনতে পারে এবং আমার কাছে আসার চেষ্টা করে। এর চেয়ে বেশি আর কী চাই!