advertisement
আপনি দেখছেন

চাঁদ সম্পর্কে রাসুলকে (সা.) জিজ্ঞেস করা হলে তিনি পবিত্র কোরআনের আয়াত তেলাওয়াত করে বলেছেন, ‘এটা মানুষের জন্য মাস ও দিন গণনার সহায়ক।’ রমজানের ব্যাপারে সহি বোখারিতে রাসুল (সা.) আরো বলেছেন, ‘তোমরা চাঁদ দেখে রোজা রাখো এবং চাঁদ দেখে রোজা ভাঙো।’

ramadan 6

ইসলামী আইনবিদদের মতে, চাঁদ দেখা প্রতিটি মুসলমানের জন্য সুন্নাত। রাসুল (সা.) শুধু চাঁদ দেখতেনই না, চাঁদের ব্যাপারে দূরদূরান্ত থেকে আগত সাহাবিদের কাছে খোঁজখবরও নিতেন। এ থেকে প্রমাণিত হয়, চাঁদের ব্যাপারে রাসুল (সা.) বেশ আগ্রহী ছিলেন।

মুজামুল আওসাত গ্রন্থে বর্ণিত হয়েছে, রাসুল (সা.) রমজানের চাঁদ দেখে এই দোয়া পড়তেন- ‘হিলালুর রুশদিন ওয়া খায়রিন। হিলালুর রুশদিন ওয়া খায়রিন। আমানতু বিল্লাজি খালাকা।’ অর্থ: এটি কল্যাণ, বরকত ও সমৃদ্ধির চাঁদ। হে মাহে রমজানের চাঁদ! আমি তার ওপর ঈমান এনেছি, যিনি তোমাকে এত মনোহর করে সৃষ্টি করেছেন। (মুজামুল আওসাত, হাদিস নম্বর : ৩৯৫১)।