advertisement
আপনি দেখছেন

ফের বিব্রতকর পরিস্থিতির মুখোমুখি স্মার্টফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠান স্যামসাং।দু'বছর আগের পুনরাবৃত্তি ঘটলো যেন। ওই সময় গ্যালাক্সি নোট সেভেন-এর ব্যাটারিতে আগুনের লাগার প্রবণতায় উন্মুক্ত করার মাত্র দুই মাসেই বাজার থেকে তুলে নিয়েছিল প্রতিষ্ঠানটি। সেই রেশ না কাটতেই এবার স্যামসাংয়ের গ্যালাক্সি নোট নাইন-এ আগুন লাগার ঘটনা ঘটেছে।

galaxy note burning

নিউইয়র্কে এক নারীর হ্যান্ড ব্যাগে থাকা অবস্থায় সদ্য বাজারে আসা স্মার্টফোনটিতে আগুন লাগে। ওই নারী জানান, ব্যবহারের সময়ই গ্যালাক্সি নোট নাইন স্মার্টফোনটি খুব গরম হয়ে যায়। এরপর তিনি ফোনটেক হ্যান্ডব্যাগে রেখে দেন। এর কিছুক্ষণ পরই ব্যাগের মধ্যে একটি শব্দ হয়।আর ধোঁয়া বের হতে শুরু করে। পরে ফোনটিকে পানিতে ডুবিয়ে শব্দ ও ধোঁয়া বন্ধ করা হয়েছিল।

এ ঘটনায় কুইন্সকোর্টে স্যামসাংয়ের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেছেন ভুক্তভোগী নারী।

অথচ গত মাসে স্যামসাংয়ের মোবাইল ব্যবসা পরিচালনার প্রধান ডিজে কো বলেছিলেন, “গ্যালাক্সি নোট নাইন-এর ব্যাটারি নিরাপদ। গ্রাহককে এ বিষয়ে শঙ্কায় ভুগতে হবে না।”

এদিকে এ দুর্ঘটনার পর স্যামসাং জানায়, স্যামসাং সব সময়ই গ্রাহক নিরাপত্তার বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে নেয়। গ্যালাক্সি নোট নাইন ডিভাইস নিয়ে এখন পর্যন্ত মাত্র একটি অভিযোগ পেয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে দেখছে প্রতিষ্ঠানটি।

sheikh mujib 2020