advertisement
আপনি দেখছেন

আজই (অক্টোবর ১৩) আসছে নতুন আইফোনের ঘোষণা। দিন কয়েক আগে থেকেই অ্যাপল তাদের ভার্চুয়াল আয়োজনের কথা জানিয়ে আসছে, যেখানে নতুন আইফোন লাইনআপের ঘোষণা দেওয়া হবে।

new iphone is about to come 1

সর্বশেষ আইফোনের মডেল ছিলো এলিভেন-প্রো সিরিজ। এবারের আইফোনের আনুষ্ঠানিক মডেল কী হবে, তা এখনো অজানা। তবে ধারণা করা হচ্ছে, নতুন আইফোন হবে আইফোন টোয়েলভ। একই সাথে অন্তত চারটি মডেল উন্মুক্ত করা হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। যদিও অ্যাপলের পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে এখনো কিছু বলা হয়নি। নতুন আইফোন উন্মুক্তের আয়োজন দেখা যাবে এখানে।

ভার্চুয়াল আয়োজনের যে আমন্ত্রণপত্র প্রকাশ করেছে অ্যাপল, তাতে তারা একটি বিষয়কে বেশি গুরুত্ব দিয়েছে— গতি। অর্থাৎ নতুন আইফোন গতির দিক থেকে পুরোনো সব মডেলকে পেছনে ফেলতে যাচ্ছে, এটি প্রায় নিশ্চিত।

নতুন আইফোনের সাথে ঠিক আগের মডেলটির কী কী পার্থক্য রয়েছে তা নিয়ে চলছে জোর গুঞ্জন। এই সব গুঞ্জনকে সামনে এনে বিশ্লেষকরা বলার চেষ্টা করছেন যে— একজন ক্রেতার কি নতুন আইফোন কেনা উচিত নাকি ঠিক আগের মডেলটি নিয়েই সন্তুষ্ট থাকা উচিত।

আসছে চারটি ভিন্ন সংস্করণ

আইফোন টোয়েলভ— বা নতুন নাম যা-ই হোক, আজ এই মডেলের অন্তত ভিন্ন চারটি মডেলের ঘোষণা আসতে পারে। একটি হলো আইফোন টোয়েলভ মিনি (পর্দা ৫.৪ ইঞ্চি), বাকিগুলো হলো— আইফোন টোয়েলভ এবং টোয়েলভ প্রো (পর্দা ৬.১ ইঞ্চি) এবং আইফোন ১২ প্রো ম্যাক্স (পর্দা ৬.৭ ইঞ্চি)। বিপরীতে আইফোন এলিভেনের ছিলো তিনটি সংস্করণ— আইফোন এলিভেন (পর্দা ৬.১ ইঞ্চি), আইফোন এলিভেন প্রো (পর্দা ৫.৮ ইঞ্চি) এবং আইফোন এলিভেন প্রো ম্যাক্স (পর্দা ৬.৫ ইঞ্চি)।

উন্নত ক্যামেরা

আগের আইফোনের ক্ষেত্রেও যা ঘটেছে— পুরোনো মডেলের চেয়ে নতুন মডেলের ক্যামেরা বেশি উন্নত; এবারও নিশ্চিতভাবে তাই ঘটতে যাচ্ছে। আইফোন এলিভেনে আছে ফোটো নাইট মোড এবং আল্ট্রা-ওয়াইড অ্যাঙ্গেল ক্যামেরা, যার মাধ্যমে ছবি আরো বিস্তারিত হয়। একই সাথে আছে অন্য যে কোনো আইফোনের তুলনায় ভালো ভিডিও ক্যামেরা। শোনা যাচ্ছে, নতুন আইফোনে স্যামসাং গ্যালাক্সি নোট টেন প্লাসের মতো টাইম-অব-ফ্লাইট ক্যামেরা যুক্ত করা হবে, যা একটি ছবি বা ভিডিওর খুব গভীরের তথ্য সংরক্ষণ করতে সক্ষম। এই প্রযুক্তির মাধ্যমে এআর ম্যাপিং করা সম্ভব, এমন কি ভিডিওর জন্য পোরট্রেইট মোডও পাওয়া সম্ভব।

আইফোনেও আসছে ফাইভ-জি

নতুন প্রজন্মের নেটওয়ার্ক ফাইভ-জি এরই মধ্যে বেশ কিছু অ্যান্ড্রয়েড ফোনে চলে এসেছে। এবার আইফোনের পালা। নতুন আইফোনের মাধ্যমে ফাইভ-জি চলে আসছে আইফোনেও— আইফোন নিয়ে যতো গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে, এটি মনে হয় তার মধ্যে সবচেয়ে নিশ্চিত বিষয়। আগের কোনো আইফোনেই এই প্রযুক্তি ছিলো না। অর্থাৎ এ দিক থেকেও নতুন আইফোন পুরোনো মডেলের চেয়ে উন্নত হতে যাচ্ছে।

নতুন আইফোন অক্টোবরের শেষ দিকে বাজারে আসতে পারে বা নভেম্বরের প্রথম দিক পর্যন্তও অপেক্ষা করতে হতে পারে। বাংলাদেশের বাজারে অ্যাপল আনুষ্ঠানিকভাবে আইফোন বিক্রি করে না। তবে বেশ কিছু অনুমোদিত বিক্রয় প্রতিনিধি আছে। তাদের কাছ থেকে নতুন আইফোন পেতে পেতে বাংলাদেশি ক্রেতাদের হয়তো নভেম্বরের শেষ বা ডিসেম্বর পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হতে পারে।

sheikh mujib 2020