advertisement
আপনি দেখছেন

স্পেসএক্সের চারজন অপেশাদার পর্যটক মহাকাশে তিন দিন কাটিয়ে নিরাপদে পৃথিবীতে ফিরে এসেছেন। তারা সফলভাবে সমাপ্ত করেছেন ইতিহাসের প্রথম কক্ষপথ মিশন। চার পর্যটকের মধ্যে একজন ধনকুবের ও অপর তিনজন সাধারণ নাগরিক। ১৫ সেপ্টেম্বর তারা ফ্লোরিডার কেনেডি স্পেস সেন্টার থেকে মহাকাশে রওনা হন।

first civilian crew spacex returnedপৃথিবীতে ফিরলেন চার অপেশাদার মহাকাশচারী

একটি ভিডিওতে দেখা গেছে, স্পেসএক্স ড্রাগন ক্যাপসুলে ফ্লোরিডা উপকূলে আটলান্টিক মহাসাগরে সন্ধ্যা ৭টায় তারা অবতরণ করেন। চারজন পৃথক প্যারসুটে ধীরে ধীরে পৃথিবীতে নামেন। তুর্কি গণমাধ্যম টিআরটি ওয়ার্ল্ড এক প্রতিবেদনে এ খবর দিয়েছে। দলটির ক্যাপ্টেন ধনকুবের জারেড আইজ্যাকমান বলছেন, এটি আমাদের জন্য একটি যাত্রা ছিল, যেটি আমাদের মাধ্যমেই শুরু হল। তিনি ভ্রমণে অর্থায়ন করেন। মহাকাশ পর্যটন আরও সহজলভ্য হবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

ভিডিওতে দেখা যায়, একটি স্পেসএক্স নৌকার সাহায্যে ক্যাপসুলটি নিরাপদভাবে গ্রহণ করে এবং হ্যাচ খোলার আগে চার মহাকাশযাত্রী হাত নেড়ে হাসছিলেন। এরপর তারা একে একে বেরিয়ে গেলেন। এরপর তারা কেনেডি স্পেস সেন্টারের দিকে যান যেখান থেকে বুধবার তারা তাদের মিশন শুরু করেছিলেন। ইন্সপাইরেশন-৪ নামক মিশনের লক্ষ্য ছিল মহাকাশে ভ্রমণকে উৎসাহিত করা।

first civilian crew spacex returned innerপৃথিবীতে ফিরলেন চার অপেশাদার মহাকাশচারী

যা প্রমাণ করে যে মহাবিশ্ব এমন ক্রুদের কাছেও প্রবেশযোগ্য, যাদেরকে পর্যটক হিসেবে কখনওই ভাবা হয়নি। অপেশাদার ব্যক্তিদের প্রশিক্ষণই দেওয়া হয়নি, কারণ মনে করা হয়েছিল তারা মহাকাশে ঘুরতে যেতে পারবে না।

চার অপেশাদার মহাকাশচারী পৃথিবীতে নামার পর স্পেসএক্সের প্রতিষ্ঠাতা এলন মাস্ক তাদের অভিনন্দন জানিয়ে টুইট করেছেন। চারজন নভোচারী তিন দিন পৃথিবীর কক্ষপথে কাটান। জারেড আইজ্যাকম্যান ছাড়া অন্য তিন সাধারণ পর্যটক হলেন- হেলে আরকেনিউক্স, সিয়ান প্রোক্টর ও ক্রিস সেমব্রস্কি।