advertisement
আপনি দেখছেন

মহাকাশ অভিযানেই হারিয়ে গেছে শিয়ান-১০ নামের চীনের একটি উপগ্রহ। এটিকে তারা পৃথিবীর কক্ষপথে পাঠাতে সক্ষম হয়নি। যান্ত্রিক গোলযোগের কারণে সেটি মহাকাশেই হারিয়ে গেছে। ঘটনার কয়েক দিন পর অবশেষে চীনের পক্ষ থেকে বিষয়টি স্বীকার করা হয়েছে।

china shiyan 10 satellite disappearedমহাকাশেই হারিয়ে গেল চীনের উপগ্রহ শিয়ান-১০

জানা যায়, দক্ষিণ চীনের সিচ্যাং উপগ্রহ উৎক্ষেপণ কেন্দ্র থেকে গত সোমবার শিয়ান-১০ নামের উপগ্রহটিকে লং মার্চ-৩বি রকেটের পিঠে চাপিয়ে মহাকাশে পাঠানো হয়। এর কয়েক ঘণ্টা আগেই দেশটির জিউকুয়ান উপগ্রহ উৎক্ষেপণ কেন্দ্র থেকে জিলিন-১ গাওফেন-০২ডি নামের আরেকটি উপগ্রহকে কুয়াইঝাউ-১এ রকেটের পিঠে চাপিয়ে মহাকাশে পাঠানো হয়।

স্পেস ডটকম বলছে, জিলিন-১ গাওফেন-০২ডি উপগ্রহটি মহাকাশে রকেট থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে সফলভাবে পৃথিবীর একটি কক্ষপথে স্থাপিত হয়। তবে কোনো হদিস পাওয়া যাচ্ছিল না শিয়ান-১০ উপগ্রহটির। শিয়ান-১০ উৎক্ষেপণের কিছু সময় পরই বিশাল আগুনের গোলা দেখা যায় অস্ট্রেলিয়ার নিউ সাউথ ওয়েলসের আকাশে। ওই সময়ই সন্দেহ জাগে চীনা উপগ্রহটি নিয়ে।

china satellite centerচীনের একটি উপগ্রহ উৎক্ষেপণ কেন্দ্র

এক টুইট বার্তায় স্পেস নিউজ জানিয়েছে, লং মার্চ-৩বি রকেটের একেবারে শেষ স্তরের খোলটি জ্বলে গিয়েছিল। ফলে আকাশে আগুনের গোলা দেখা যায়। চীনের পক্ষ থেকে আগে জানানো হয়নি যে, শিয়ান-১০ উপগ্রহটিকে পৃথিবীর ঠিক কোন কক্ষপথে পাঠানো হচ্ছে।

অবশ্য আমেরিকার স্পেস ফোর্স যাবর্তী তথ্যাদি বিশ্লেষণ করে জানিয়েছে, চীন তাদের শিয়ান-১০ উপগ্রহটিকে পৃথিবীর জিওসিনক্রোনাস কক্ষপথে পাঠাতে চেয়েছিল। বেইজিংয়ের লক্ষ্য ছিল এর মাধ্যমে সামরিক গোয়েন্দাগিরি করা।