advertisement
আপনি দেখছেন

বিশেষজ্ঞদের মতে নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি জীবাণু থাকে ফোন ও ল্যাপটপে। সুতরাং এই দুটি দৈনন্দিন প্রয়োজনীয় জিনিস পরিষ্কার ও জীবাণুমুক্ত রাখা অত্যন্ত জরুরি। আপনি নিশ্চয় এগুলো পরিষ্কারের উপায় জানেন। ফোন বা ল্যাপটপ পরিষ্কার করার সময় নিচের ৭টি উপায় ভুলেও অবলম্বন করবেন না। এতে আপনার ডিভাইস স্থায়ীভাবে নষ্ট হতে পারে।

avoid this seven ways to clean your phone

জানলা পরিষ্কার করার তরল দিয়ে ফোন পরিষ্কার, অসম্ভব!

জানলা পরিষ্কার করার জন্য নানা ধরনের তরল পাওয়া যায় বাজারে। সেই সবের ব্যবহার মুহূর্তেই জানলার কাচ ঝকঝকে করে দেয়। তো আপনি ভাবলেন যে, এটা দিয়ে তাহলে ফোনও পরিষ্কার করা যাবে। না, ভুল!

আধুনিক ফোনে নানা ধরনের কোটিং ব্যবহার করা হয়। এতে ফোনের গুণগতমান অটুট থাকে। কিন্তু পরিষ্কার করার জন্য তীব্র শক্তির কোনো তরল ব্যবহার করলে ফোনের কোটিংও ‘পরিষ্কার’ হয়ে যেতে পারে। যার ফল হাতে পারে ফোন পুরোপুরি নষ্ট!

কিচেন ক্লিনার!

কিচেনের পাতিল পরিষ্কার করতে যে ক্লিনার ব্যবহার করা হয়, তা অত্যন্ত তীব্র। এ ধরনের ক্লিনার ফোনে ব্যবহার করা মানে ফোনটাকে নষ্ট করে ফেলা। কিচেন ক্লিনার যতো সহজে তেলপোড়া দাগ দূর করুক না কেনো, ফোন পরিষ্কার করার জন্য তা মোটেও উপযোগী নয়। ব্লিচিং পাউডার দিয়ে ফোন পরিষ্কার করতে গেলেও বিপরীত ফলই পাওয়া যাবে।

পেপার টাওয়েল

পেপার টাওয়েল হয়তো খুবই সহজলভ্য জিনিস এবং ফোন পরিষ্কারের জন্য এটি ক্ষতিকর হতে পারে, তা মনেই হয় না। কিন্তু প্রকৃতপক্ষে এই ধরনের টিস্যু জাতীয় কাগজ দিয়ে ফোন পরিষ্কার করা বিপজ্জনক। কারণ কাগজ দিয়ে স্ক্রিন মুছতে গেলে কাগজ ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র কণায় ছিঁড়ে যেতে পারে। যা ফোনের বিভিন্ন পোর্ট দিয়ে ফোনের ভেতর দিয়ে প্রবেশ করে ফোন নষ্ট হতে পারে। সুতরাং পেপার টাওয়েল দিয়ে ফোন পরিষ্কার করতে যাবেন না।

মেকআপ রিমুভার দিয়ে ফোন পরিষ্কার করতে যাবেন না

মেকআপ রিমুভারে এমন কিছু কেমিক্যাল থাকে যা ফোনের স্ক্রিন কোটিংয়ের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর। ফলে মেকআপ রিমুভার দিয়ে ভুলেও স্ক্রিন পরিষ্কার করতে যাবেন না। এর বদলে সাধারণ কাপড়ে হালকা পানি ভিজিয়ে স্ক্রিন পরিষ্কার করতে পারেন।

কম্প্রেসড এয়ার

ফোনের গঠন অত্যন্ত সংবেদনশীল। ফলে অনেক জোরে প্রবাহিত বাতাস দিয়ে ফোন পরিষ্কার করার ধারণা বাজে ফল এনে দিতে পারে। সুতরাং এয়ার কম্প্রেসার দিয়ে ফোন পরিষ্কার করতে যাওয়া বোকামি হবে।

ডিশ সোপ বা হ্যান্ড ওয়াশ

ডিশ সোপ বা হ্যান্ড ওয়াশিং সোপ দিয়ে ফোন পরিষ্কার হবে না, উল্টো ফোনের জীবনীশক্তি নিঃশেষ হয়ে যাবে। ফোনের গঠন এই ধরনের পরিষ্কার করার উপাদান সহ্য করার ক্ষমতা সম্বলিত নয়। সুতরাং ডিশ সোপ বা হ্যান্ড ওয়াশ দিয়ে ফোন পরিষ্কার করতে যাবেন না।

ভিনেগার

ভিনেগারকে ইদানিং ‘সকল রোগের মহৌষধ’ হিসেবে ব্যবহার করার প্রবণতা লক্ষ করা যায়। কিন্তু প্রকৃতপক্ষে ভিনেগার দিয়ে ফোন পরিষ্কার করার চেষ্টা করলে আপনার ফোনের স্ক্রিন স্থায়ীভাবে বাতিল বা নষ্ট হতে পারে। তবে ভিনেগারের সাথে পানি মিশিয়ে ফোন পরিষ্কার করা যায়। এ ক্ষেত্রে পানি ও ভিনেগারের অনুপাত হবে ৫০/৫০ এবং এই মিশ্রণ দিয়ে ফোনের ব্যাক সাইড ও পাশ পরিষ্কার করা যাবে, স্ক্রিন নয়।