advertisement
আপনি দেখছেন

পুলিশের হাতে এক কৃষ্ণাজ্ঞ নাগরিক খুন হওয়ার পর থেকে ক্ষোভে উত্তাল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। এখনো পুরো দেশজুড়েই চলছে আন্দোলন। সেটির প্রভাব পড়েছে জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকের ওপর। আন্দোলনকারীদের অভিযোগ, ফেসবুকের মাধ্যমে বর্ণবাদ ও ঘৃণ্য বক্তব্য ছড়ানো হচ্ছে, যা ঠেকাতে ব্যর্থ কর্তৃপক্ষ।

facebook must stand up for free speech

সেই অভিযোগের প্রেক্ষিতে ইতোমধ্যে ফেসবুকে নিজেদের বিজ্ঞাপন দেয়া বন্ধ করে দিয়েছে বহুজাতিক প্রসাধনী কোম্পানি ইউনিলিভার, কোকাকোলাসহ আরো ৯০টির বেশি প্রতিষ্ঠান। এর প্রভাবে ফেসবুকের শেয়ারের মারাত্মক দরপতন ঘটেছে। ফলে সম্পদ কমে গেছে ৭২০ কোটি মার্কিন ডলার।

বার্তা সংস্থা এএফপির খবরে বলা হয়, ২৬ জুন ফেসবুকের শেয়ারের ৮ দশমিক ৩ শতাংশ দরপতন ঘটে। গত তিন মাসের মধ্যে এটিই প্রতিষ্ঠানটির সর্বোচ্চ দরপতন। এ ছাড়া বিভিন্ন কোম্পানি তাদের বিজ্ঞাপন বন্ধ করে দিয়েছে। #স্টপহেটফরপ্রফিট আন্দোলন জোরদারের ফলেই এমনটা হয়েছে।

ব্লুমবার্গ বিলিয়নিয়ার সূচক অনুযায়ী, ফেসবুকের শেয়ারের দরপতন ঘটায় বিশ্বের শীর্ষ ধনী ব্যক্তির তালিকায়ও প্রতিষ্ঠানটির প্রধান নির্বাহী মার্ক জাকারবার্গের ছন্দপতন ঘটেছে। ৭২০ কোটি মার্কিন ডলার কমে যাওয়াতে তার বর্তমান সম্পদের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৮ হাজার ২৩০ কোটি মার্কিন ডলার।

facebook hacked

ফলে বিশ্বের শীর্ষ ধনী ব্যক্তির তালিকায় এক ধাপ নিচে নেমে গেছেন তিনি। আগে তিনে থাকলেও বর্তমানে চার নম্বরে অবস্থান করছেন মার্ক জাকারবার্গ। তিনে উঠে এসেছেন লুই ভুটনের প্রধান নির্বাহী বার্নার্ড আরনল্ট।

এদিকে বিজ্ঞাপন বর্জনের বিষয়ে মার্ক জাকারবার্গ সরাসরি কোনো মন্তব্য না করলেও #স্টপহেটফরপ্রফিট আন্দোলনকে সমর্থন করে এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, এখন থেকে ফেসবুক ভোট সংক্রান্ত পোস্টে লেবেল লাগাবে। এ ছাড়া যেকোনো ধরনের ঘৃণ্য বক্তব্য (হেট স্পিচ) নিষিদ্ধ করা হবে। সেটা যার পক্ষ থেকেই আসুক না কেন, এমনকি রাজনীতিবিদরাও এর ব্যতিক্রম নন।

sheikh mujib 2020