advertisement
আপনি পড়ছেন

আর্থিক ও প্রশাসনিক কার্যক্রমের ক্ষেত্রে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে ‘ব্লকচেইন’ নির্ভরযোগ্য ও কার্যকরী প্রযুক্তি। আজ রোববার ঢাকায় এক অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

blockchain palakব্লকচেইন প্রযুক্তি, প্রতীকী ছবি

এদিন বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল (বিসিসি) অডিটরিয়ামে ‘ব্লকচেইন অলিম্পিয়াড বাংলাদেশ- ২০২১’ এ বিজয়ীদের হাতে পুরস্কারের অর্থ তুলে দেয়া হয়। যৌথভাবে এর আয়োজন করে সরকারের আইসিটি বিভাগ ও বাংলাদেশ ব্লকচেইন অলিম্পিয়াড।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, ব্লকচেইন প্রযুক্তি ব্যবহার না করলে পিছিয়ে পড়ব আমরা। ফ্রন্টিয়ার প্রযুক্তির ক্ষেত্রে আমরা পিছিয়ে থাকতে চাই না।

এই প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে কৃষি, শিক্ষা, স্বাস্থ্যসহ প্রতিটি ক্ষেত্রে অর্থনৈতিক উন্নয়নকে এগিয়ে নেয়ার তাগিদ দেন প্রতিমন্ত্রী। বলেন, আগামী ২০২৫ সাল নাগাদ আইটি ও আইটিএস খাতে রপ্তানি আয় ৫ বিলিয়ন ডলারে উন্নীত করতে কাজ করছে সরকার।

blockchain palakঅনুষ্ঠানে জুনাইদ আহমেদ পলক

বর্তমানে দেশে সাড়ে ৬ লাখ আইটি ফ্রিল্যান্সার রয়েছে উল্লেখ করে জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, ৫০০ মিলিয়ন ডলারের বেশি আয় করছে তারা। হার্ডওয়্যার ও সফটওয়্যারসহ সবমিলিয়ে আয় হচ্ছে ১ বিলিয়ন ডলার।

চলতি বছরের ৮-১০ অক্টোবর (সম্ভাব্য) আন্তর্জাতিক ব্লকচেইন অলিম্পিয়াড বাংলাদেশে অনুষ্ঠিত হবে বলে জানান প্রতিমন্ত্রী পলক। এতে অংশ নেয়ার মাধ্যমে বিশ্বের দরবারে মেধা ও যোগ্যতার দৃষ্টান্ত সৃষ্টি করতে তরুণদের প্রতি আহ্বান রাখেন তিনি।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিসিসির নির্বাহী পরিচালক পার্থপ্রতিম দেব। অন্যদের মধ্যে আইসিটির সিনিয়র সচিব এন এম জিয়াউল আলম, বিসিওএলবিডির সমন্বয়ক হাবিবুল্লাহ এন করিম, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক মোহাম্মদ আব্দুল মোমেন বক্তব্য রাখেন।