advertisement
আপনি দেখছেন

ফেসবুক এবং এর বিভিন্ন অ্যাপ শিশুদের ক্ষতি এবং বিভাজন সৃষ্টি করে। পাশপাশি গণতন্ত্রকেও দুর্বল করে। ফেসবুক নিয়ে ক্যাপিটল হিলে অনুষ্ঠিত এক শুনানিতে কোম্পানিটির ৩৭ বছর বয়সী সাবেক প্রোডাক্ট ম্যানেজার ফ্রান্সেস হগেন এ মন্তব্য করেন। বিবিসি।

frances haugenফ্রান্সেস হগেন

ফ্রান্সেস হগেন এমন এক সময় এ ধরনের মন্তব্য করলেন যখন ফেসবুকের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে অনেকেই কথা বলছেন। ফেসবুক অবশ্য বলেছে, হগেন এমন কিছু বিষয় নিয়ে কথা বলেছেন যে সম্পর্কে তার কোনো জ্ঞান নেই।

ফেসবুকের পরিবর্তন প্রশ্নে মঙ্গলবার রিপাবলিকান ও ডেমোক্রেটিক উভয় দলের সিনেটররা ঐক্যবদ্ধ হন, যা ছিল মার্কিন দুটি রাজনৈতিক দলের জন্য একটি বিরল বিষয়।

social media 1সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম

শুনানির পর এক বিবৃতিতে ফেসবুক বলেছে, ফ্রান্সেস হগেন যেসব বিষয়ে সাক্ষ্য দিয়েছেন, সেসব ব্যাপারে তারা একমত নন। তবে এটি ঠিক যে, ইন্টারনেটের জন্য স্ট্যান্ডার্ড নিয়ম তৈরির সময় এসে গেছে। এর আগের নিয়মগুলো আপডেট হওয়ার পর ২৫ বছর অতিবাহিত হয়ে গেছে। সুতরাং এ ব্যাপারে কংগ্রেসের পদক্ষেপ নেওয়ার সময় এসেছে।

ফ্রান্সেস হগেন রোববার সিবিএস নিউজকে বলেন, তিনি সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলিতে ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের সাথে বেশ কয়েকটি অভ্যন্তরীণ ফেসবুক নথি শেয়ার করেছেন। যে ডকুমেন্টগুলির বরাতে ডব্লিউএসজে জানিয়েছে, ইনস্টাগ্রামে পরিচালিত গবেষণায় দেখা গেছে অ্যাপটি মেয়েদের মানসিক স্বাস্থ্যের ক্ষতি করতে পারে।

মঙ্গলবার ফ্রান্সেস হগেন তার শুনানিতে বলেন, ফেসবুকের নেতৃত্ব জানে কিভাবে ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রামকে নিরাপদ করা যায়, কিন্তু তারা তা করেনি। কোম্পানির প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান মার্ক জাকারবার্গের ব্যাপক সমালোচনা করে তিনি বলেন, বর্তমানে তাকে জবাবদিহি করার কেউ নেই।

সম্প্রতি সার্ভার জটিলতায় প্রায় ৬ ঘণ্টা বন্ধ ছিল ফেসবুক। এ নিয়েও কথা বলেছেন ফ্রান্সেস হগেন।

ফেসবুক বর্তমানে বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম। প্রতিমাসে এর সক্রিয় ব্যবহারকারী প্রায় ২৭০ কোটি।