advertisement
আপনি পড়ছেন

সেলফি তুলে আয় করা যায়- শুনলেই অবাক হওয়ার কথা। এটা করেই কোটিপতি হয়েছেন ইন্দোনেশিয়ার এক কলেজ ছাত্র। প্রতিদিন একটি করে সেলফি তুলতেন ওই শিক্ষার্থী। তার ইচ্ছে ছিল সেলফিগুলো দিয়ে একটি টাইমল্যাপস ভিডিও তৈরির। তবে হঠাৎই সেসব সেলফি তার কপাল খুলে দিয়েছে।

ghozali indonesiaগুস্তাফ আল ঘোজালির ফেসবুক আইডি

এক প্রতিবেদনে এএফপি জানিয়েছে, একটি নন ফাঞ্জিবল টোকেন (এনএফটি) ১০ লাখ মার্কিন ডলারেরও বেশি দামে (বাংলাদেশি টাকায় সাড়ে ৮ কোটি টাকা) বিক্রি করেছেন গুস্তাফ আল ঘোজালি নামক ওই কলেজ ছাত্র।

জানা গেছে, গুস্তাফ আল ঘোজালি ইন্দোনেশিয়ার সেমারাং শহরের একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে কম্পিউটার সায়েন্স নিয়ে পড়াশোনা করছেন। সেলফিগুলো তিনি তুলেছেন গত পাঁচ বছরে। তার ইচ্ছা ছিল এক হাজার সেলফি তুলে গ্রাজুয়েশনের দিন একটি টাইমলাপস ভিডিও তৈরি করবেন।

তবে তার এই সিদ্ধান্তে পরিবর্তন আসে ক্রিপটোকারেন্সি সম্পর্কে জানার পর। নিছক মজার ছলেই এনএফটিতে তার সেলফিগুলো আপলোড করার সিদ্ধান্ত নেন গুস্তাফ। ভেবেছিলেন, কেউই হয়তো পাত্তা দেবে না। কিন্তু তাকে অবাক করে দিয়ে অজ্ঞাত একজন গুস্তাফের ওই সেলফিগুলো কিনে নেন। এরপর একে একে বিক্রি হয়ে যায় ৩১৭টি সেলফি। এতেই গুস্তাফের পকেটে ঢোকে ১০ লাখ মার্কিন ডলারের বেশি।

নিজের একটি অ্যানিমেশন স্টুডিও খোলার স্বপ্ন পূরণে এই অর্থ ব্যয় করবেন বলে জানিয়েছেন গুস্তাফ।